লন্ডন: বিরাট কোহলি ও হ্যারি কেন। ক্রিকেট ও ফুটবলে দুই দেশের দুই অধিনায়কের একে অপরের প্রতি ভালোবাসার কথা নেটিজেনদের অজানা নয়। একজন অধিনায়ক হিসেবে গতবছর রাশিয়া বিশ্বকাপে গুরুদায়িত্ব নিয়েছিলেন দেশকে চ্যাম্পিয়ন করার। শেষমেষ ইংল্যান্ড সেমিফাইনাল থেকে বিদায় নিলেও সর্বোচ্চ গোলস্কোরার হয়ে টুর্নামেন্টে গোল্ডেন বুট জিতে নিয়েছিলেন ইংরেজ অধিনায়ক হ্যারি কেন।

অন্যজন ১৩০ কোটির প্রত্যাশার চাপ কাঁধে নিয়ে সম্প্রতি পা রেখেছেন ইংল্যান্ডের মাটিতে। লক্ষ্য সেই বিশ্বকাপ। আর ক্রিকেটের মেগা ইভেন্ট শুরুর দিনছয়েক আগে সোশ্যাল মিডিয়ার গন্ডি ছাড়িয়ে অবশেষে মুখোমুখি বিরাট কোহলি ও হ্যারি কেন।

সালটা ২০১৬। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে কোহলির ব্যাটিংয়ে মন্ত্রমুগ্ধ হয়ে কেন টুইট করে জানিয়েছিলেন, ‘বিরাট কোহলি এমন একজন ক্রিকেটার, যিনি চাপের মুখে তাঁর সেরা ক্রিকেটটা উপহার দিয়ে থাকেন বারংবার।’ রাশিয়া বিশ্বকাপ শুরুর আগে চুপ থাকেননি কোহলিও। ফুটবল পাগল কোহলি রাশিয়া বিশ্বকাপের আগে তাঁর প্রিয় ফুটবলারকে মেগা টুর্নামেন্টের জন্য শুভেচ্ছা জানিয়েছিলেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। প্রত্যুত্তরে বিরাটকে ধন্যবাদও জানিয়েছিলেন ইংল্যান্ড দলনায়ক। এতদিন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেই সীমাবদ্ধ ছিল শুভেচ্ছা বিনিময়ের বিষয়টি।

অবশেষে ক্রিকেট বিশ্বকাপ শুরুর আগে এল সেই মাহেন্দ্রক্ষণ। অভিজাত লর্ডস ক্রিকেট স্টেডিয়ামের বাইরে দেখা হয়ে গেল বিরাট-কেনের। বিশ্বকাপের প্রাক-প্রস্তুতি পর্ব লন্ডনেই সারছে টিম ইন্ডিয়া। আগামীকাল কেনিংটন ওভালে প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের মুখোমুখি টিম ইন্ডিয়া। অন্যদিকে গোড়ালির চোট সারিয়ে লিভারপুলের বিরুদ্ধে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনালে মাঠে নামার লড়াই চালাচ্ছেন ইংরেজ অধিনায়ক হ্যারি কেন। ঠিক এমন সময় অর্থাৎ বিশ্বকাপ শুরুর ৬ দিন আগে এবং চ্যাম্পিয়ন্স লিগ মহারণের ৮ দিন আগে লন্ডনে হঠাতই মুখোমুখি দুই মহাতারকা।

শুধু সাক্ষাৎ কিংবা বাক্যালাপই নয়। প্রিয় ক্রিকেট তারকার সঙ্গে দেখা করে সেলফি তোলার সুযোগ হাতছাড়া করলেন না টটেনহ্যাম তারকা। টুইটারে সেই ছবি পোস্ট করে হ্যারি কেন লেখেন, ‘বেশ কিছু টুইট চালাচালির পর অবশেষে বিরাট কোহলির সঙ্গে সাক্ষাতের সুযোগ হল। দারুণ মানুষ একইসঙ্গে দুর্দান্ত স্পোর্টসম্যান।’ কেনের সেই টুইট প্রকাশ্যে আসতেই তা ভাইরাল হয়ে যায় নেটদুনিয়ায়। এবার ইংরেজ ফুটবল অধিনায়কের প্রত্যুত্তরে ভারত অধিনায়কের টুইটের অপেক্ষায় ক্রীড়াপ্রেমীরা।

২৫ ও ২৮ মে নিউজিল্যান্ড ও বাংলাদেশের বিরুদ্ধে প্রস্তুতি ম্যাচের পর ৫ জুন বিরাটের নেতৃত্বে বিশ্বকাপ অভিযান শুরু করবে ভারত। এই নিয়ে তৃতীয় বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করলেও অধিনায়ক হিসেবে দেশকে প্রথমবার নেতৃত্ব দেবেন বিরাট কোহলি। টাইটানিকের শহর সাউদাম্পটনে ভারতের প্রথম ম্যাচ দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে।