মুম্বই: নির্বাচনের আগে ভুয়ো খবর, তথ্য বা গুজব ছড়িয়ে পড়া রুখতে নতুন ফ্যাক্ট চেক সার্ভিস চালু করল হোয়াটসঅ্যাপ৷ মঙ্গলবার থেকে ভারতের হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীদের জন্য এই ফ্যাক্ট চেক সার্ভিস বা তথ্য যাচাই পরিষেবা চালু করা হয়েছে৷

লোকসভা নির্বাচনের আগে রাজনৈতিক উদ্দ্যেশ্যপ্রণোদিত ভাবে ছড়ানো একাধিক খবর বাজারে ঘুরছে বলে বিশেষজ্ঞদের ধারণা৷ সেই সব খবর মানুষকে প্রভাবিত করতে পারে, এমনকী ভুল তথ্য ছড়িয়ে পড়ে গুজব ছড়ানোরও আশংকা থাকছে৷ এই বিপদই রুখতে চাইছে হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষ৷

এক বিবৃতিতে তাঁদের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, স্থানীয় কিছু সংস্থার সাহায্যে এই খবর যাচাইয়ের কাজ করা হবে৷ তৈরি করা হবে ডেটাবেস, যেখানে ব্যবহারকারীরা কোনও তথ্য সঠিক কীনা, তা পরখ করতে পারবেন৷ ভারতে ২০ কোটি হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারী এই ডেটাবেসের সুবিধা পাবেন৷

আরও পড়ুন : ‘নমো’ টিভি চালু সংক্রান্ত তথ্য চাইল নির্বাচন কমিশন

ভুয়ো খবর বা গুজবকে কোনও নির্দিষ্ট অঞ্চলের মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখা যায় না৷ তবে তুলনামূলক ভাবে গ্রামাঞ্চলে এই সমস্যাটা একটু বেশি৷ কারণ সেখানে খবরটার সত্যতা যাচাই করার সুযোগ একেবারে কম৷ এক্ষেত্রে পথ একটাই৷ তথ্যের যাচাই করার সুবিধা থাকলে আর তা সহজলভ্য হলে, দ্রুত ভুয়ো খবর ছড়িয়ে পড়া আটকানো যায়৷ উল্লেখ্য, শুধু হোয়াটসঅ্যাপ নয়, ফেসবুকও নির্বাচনের আগে বিশেষ কিছু পদক্ষেপ নিয়েছে৷

সোমবার ফেসবুকের পক্ষ থেকে এই খবর জানানো হয়েছে। ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম মিলিয়ে মোট ৭১২টি অ্যাকাউন্ট, ৩৯০টি পেজ, গ্রুপ এবং অন্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। যেগুলি পাকিস্তানের মিলিটারি পেজের নামে পরিচালনা করা হত। একই সঙ্গে আরও জানানো হয়েছে যে এই সকল অ্যাকাউন্টগুলির মাধ্যমে ভারত বিদ্বেষী নানাবিধ পোস্ট করা হতো।

ভারতের অভ্যন্তরীণ নানাবিধ বিষয় যেমন রাজনীতি, সামাজিক সহ অন্যান্য বিষয় নিয়েও পোস্ট করা হট। যেগুলি থেকে ভারতীয় সমাজে অসন্তোষের সৃষ্টি হওয়ার প্রবল সম্ভাবনা দেখা দিচ্ছিল৷ অনেক জায়গায় পাকিস্তানী ফেসবুক অ্যাকাউন্টের পোস্ট থেকে হিংসা ছড়িয়েছে বলেও জানা গিয়েছে।

আরও পড়ুন : ভোটের পরে বিএসএনএল-এর ৫৪হাজার কর্মী ছাঁটাই

আরও বড় বিষয় হচ্ছে, পাকিস্তান সেনাবাহিনীর নামে পরিচালিত এই সব ফেসবুক পেজ বা অ্যাকাউন্টগুলো থেকে হিংসা ছড়ানো হচ্ছিল কাশ্মীরের মাটিতেও। ফেসবুক জানিয়েছে, কংগ্রেসের সঙ্গে যুক্ত ৫৪৯ টি একাউন্ট এবং ১৩৮ টি পেজ সরানো হয়েছে৷ ব্যবহারকারীদের পরিচিতি নিয়ে বিভ্রাট থাকার কারণেই পেজ এবং প্রোফাইলগুলো সরিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে জানানো হয়েছে ফেসবুকের পক্ষ থেকে৷

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও