ওয়াশিংটন: ফেসবুক ডিলিট করার পরামর্শ দিলেন হোয়াটস অ্যাপের যুগ্ম প্রতিষ্ঠাতা ব্রায়ান অ্যাক্টন৷ সোশ্যাল মিডিয়া জায়েন্ট ফেসবুক থেকে তথ্য ফাঁস হয়ে যায়৷ এই অভিযোগ তুলে ফেসবুক ডিলিট করার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি৷

২০১৪ সালে অ্যাক্টনের প্রোডাক্ট কিনে নেয় ফেসবুক৷ ১৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলারে এটি কিনেছে তারা৷ অ্যাক্টন সম্প্রতি ট্যুইটারে লিখেছেন, “সময় এসে গিয়েছে৷ #ডিলিট ফেসবুক৷”

সম্প্রতি কেম্ব্রিজ অ্যানালিটিশিয়া অভিযোগ তুলেছে এই প্ল্যাটফর্মে ডেটা সুরক্ষিত নয়৷ এই উদ্বেগের কথা প্রকাশ্যে আসার পরই হোয়াটস অ্যাপের যুগ্ম প্রতিষ্ঠাতা ব্রায়ান অ্যাক্টন এই পোস্টটি করেন৷ এই সংস্থাটি ফেসবুক ব্যবহারকারীদের প্রোফাইল খতিয়ে দেখে৷ তারপর এই সিদ্ধান্তের কথা শোনানো হয়৷ তবে ফেসবুকের তরফ থেকে এই অভিযোগ অস্বীকার করা হয়৷ জানানো হয় সোশ্যাল সাইট ফেসবুক সম্পূর্ণ সুরক্ষিত৷ কোনও তথ্য কোনওভাবে এখান থেকে ফাঁস হয় না৷ কিন্তু তা সত্ত্বেও গত ৫ দিনে কোম্পানির শেয়ার ব্যাপক হারে পড়ে যায়৷

কেমব্রিজ অ্যানালিটিশিয়া ২০১৬ সালে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্বাচন ক্যাম্পেনর সময় কাজ করেছিল৷

প্রসঙ্গত, কেমব্রিজ অ্যানালিটিশিয়া মঙ্গলবার কোম্পানির চিফ এক্সিকিউটিভ অ্যালেকজান্ডার নিক্সকে সাসপেন্ড করে৷ ৫০ মিলিয়নের বেশি ফেসবুক ব্যবহারকারীর ব্যক্তিগত তথ্য জালিয়াতির অভিযোগে তাকে সাসপেন্ড করা হয়৷