কলকাতা: করোনা ভাইরাসের চিকিত্‍সায় হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন একমাত্র ও অব্যর্থ ওষুধ কি না তা এখনও প্রমাণিত নয়৷ তা সত্ত্বেও গোটা পৃথিবী এখন হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন চাইছে৷ আর এই ওষুধ সবচেয়ে বেশি প্রস্তুত করে ভারত৷ ফলে আমেরিকার রাষ্ট্রপ্রধানের হুমকির মুখে পড়তে হয়েছিল ভারতকে৷

হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন কী?

হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন ম্যালেরিয়ার ওষুধ৷ তার পাশাপাশি আর্থরাইটিস, রিউম্যাটয়েড, লিউপাসের মতো রোগেও ডাক্তাররা দিয়ে থাকেন রোগীকে৷

হঠাত্‍ কেন বিশ্বজুড়ে হাইড্রক্সিক্লোরোকুইনের চাহিদা ?

বিশ্বজুড়ে করোনা ভাইরাস মহামারি আকার নিয়েছে৷ শুরু হয় গবেষণা৷ এরই মধ্যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এক দল চিকিত্‍সা বিজ্ঞানী জানিয়েছে, হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন ও অ্যাজেথ্রোমাইসিনের মিশ্রণ নাকি করোনা সারিয়ে তুলতে পারে৷

আবার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের দাবি, ‘ফ্রান্সে একটি স্টাডিতে পাওয়া গিয়েছে, এই ওষুধ মিরাকল৷ এবং চিকিৎসাবিজ্ঞানের ইতিহাসে গেম চেঞ্জার হতে চলেছে এই ওষুধ৷

ফ্রান্সের স্টাডি কী বলছে?

৪০ জনের কম করোনা রোগীর ক্ষেত্রে এই ওষুধ প্রয়োগ করে দেখা গিয়েছে, হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন দ্রুত গতিতে ভাইরাসের পরিমাণ কমাতে পারে৷ সম্ভবত, করোনা ভাইরাসকে কোষের মধ্যে বাড়তে দেওয়াও আটকে দেয়৷ যদিও ফ্রান্সের একটা বড় অংশের ডাক্তারই বলছেন, এই স্টাডির কোনও ভিত্তি নেই৷

ডাক্তাররা বলছেন, এই ওষুধ রোগীর কোষের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে ভাইরাস রুখে দেওয়ার চেষ্টা করে৷ কিছু ক্ষেত্রে হার্ট অ্যাটাক ও লিভার ড্যামেজও দেখা গিয়েছে৷ এই ওষুধে করোনা সত্যিই সারছে? বিশ্বজুড়ে জল্পনার মাঝেও, করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে হাইড্রক্সিক্লোরোকুইনই একমাত্র ওষুধ, এখনও বিজ্ঞানসম্মত প্রমাণ নেই৷ কিছু ক্ষেত্রে অবশ্যই কাজ হয়েছে৷ তবে মেডিক্যাল এভিডেন্স নেই৷

হোয়াইট হাউসের করোনাভাইরাস অ্যাডভাইসার চিকিত্‍সক অ্যান্থনি ফাউচির বক্তব্য, বিজ্ঞানের দিক থেকে দেখলে, এই ওষুধ নিশ্চিত ভাবে করোনা সারিয়ে দেবে, এই কথাটা বলার জায়গায় নেই আমরা৷ তবে এখনও পর্যন্ত এটাই সবচেয়ে ভালো, ডেটা যা বলছে৷ কিছু ক্ষেত্রে দেখা যাচ্ছে, ওষুধটি কাজ করছে৷ কিছু ক্ষেত্রে করছে না৷

এবার করোনার এই ওষুধ তৈরি করবে কলকাতার বেঙ্গল কেমিক্যাল এন্ড ফার্মাসিউটিক্যালস৷

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।