ক্ষমতায় আসার পর একাধিক যোজনা চালু করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এপিওয়াই (অটল পেনশন যোজনা) তার মধ্যে একটি। এই যোজনার অধীনে থাকা ব্যক্তি ৬০ বছরের পর থেকে প্রত্যেক মাসে কমপক্ষে ১০০০, ২০০০ , ৩০০০ , ৪০০০ অথনা ৫০০০ টাকা পেনশন হিসেবে পাবেন।

কেন এটা গুরুত্বপূর্ণ:
যুবক বা মধ্যবয়স্ক কোনও ব্যক্তির কাছে মাসের শেষে হাজার টাকা বা ৫ হাজার টাকা খুন একটা হয়তো গুরুত্বপূর্ণ নয়। কিন্তু শরীর যখন বয়সের ভারে ন্যুব্জ, তখন পরিবারের অন্য সদস্যদের কাছে হাত পেতে টাকা নেওয়ার চেয়ে কোনও প্রকল্প থেকে যদি মাসিক টাকা পাওয়া যায়, তবে তা দারুণ ব্যাপার। আর এখানেই অটল পেনশন যোজনার গুরুত্ব।

কারা এই স্কিমের আঁওতায় আসতে পারেন :
যে কোনও ভারতীয় নাগরিক এই স্কিমের সুবিধা নিতে পারেন। তবে এক্ষেত্রে বেশ কয়েকটি সীমারেখা টানা রয়েছে, আসুন সেগুলির দিকে নজর দেওয়া যাক।

১) যিনি এই প্রকল্পের আঁওতায় আসতে চাইছেন অবশ্যই তাঁর বয়স হতে হবে ১৮ থেকে ৪০ -এর মধ্য।

২) আবেদনকারীর অবশ্যই একটি সেভিংস ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থাকতে হবে।

৩) সম্ভাব্য আবেদনকারীকে অতি অবশ্যই মোবাইল পরিষেবার অধীনে থাকতে হবে। সেই মোবাইল নম্বর ব্যাংকে নথিভুক্তও করতে হবে।

মাসে হাজার টাকা করে নিশ্চিত করতে হলে আপনাকে কত টাকা দিতে হবে?

এক্ষেত্রে বয়স একটা বড় বিষয়। আপনি কোন বয়সে এটি করছেন, তাঁর ওপরে নির্ভর করবে আপনাকে মাসিক কত টাকা দিতে হবে। ব্যাপারটি নীচের ছবিতে পরিষ্কার ভাবে বোঝানো রয়েছে।

অটল পেনশন যোজনার অধীনে অ্যাকাউন্ট খুলতে গেলে কী করবেন?

যে ব্যাংকে আপনার সেভিংস অ্যাকাউন্ট রয়েছে সেখানে যান। ব্যাংকের সঙ্গে কথা বলে অটল পেনশন যোজনার জন্য নির্দিষ্ট ফর্ম ফিল-আপ করুন। আধার ও মোবাইল নম্বর দিন। এই অ্যাকাউন্ট থেকেই আপনার মাসিক টাকা কেটে নেওয়া হবে, তাই খেয়াল রাখুন যাতে ব্যাংকে সেই পরিমাণ টাকা থাকে।

বিদ্র: যোজনার লাভ নেওয়ার আগে ব্যাংকের সঙ্গে সঠিক ভাবে কথা বলে নিন।