নর্দাম্পটন: কাউন্টি ক্রিকেটে হাতেখড়ি হতে চলেছে আইসিসি’র এক নম্বর অলরাউন্ডার জেসন হোল্ডারের। ২০১৯ মরশুমের শুরুতেই কাউন্টি ক্লাব নর্দাম্পটনশায়ারের হয়ে নামতে দেখা যাবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ অধিনায়ককে।

বৃহস্পতি বারই ক্লাবের তরফে হোল্ডারের সঙ্গে চুক্তির কথা জানিয়ে দেওয়া হয়। কাউন্টি মরশুমের শুরুতেই হোল্ডারকে পাওয়া গেলেও গোটা মরশুম নর্দাম্পটনের হয়ে মাঠে নামা সম্ভব নয় তারকা অলরাউন্ডারের। জাতীয় কর্তব্য থেকে সাময়িক অবসরে ইংল্যান্ডে ঘরোয়া ক্রিকেট খেলবেন তিনি।

আরও পড়ুন: চ্যাম্পিয়নদের পাঁচ কোটি

৫ এপ্রিল থেকে মিডলসেক্সের বিরুদ্ধে এবং ১১ এপ্রিল থেকে গ্ল্যামারগনের বিরুদ্ধে দু’টি চ্যাম্পিয়নশিপ ম্যাচে নর্দাম্পটনের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করবেন হোল্ডার। এছাড়া রয়্যাল লন্ডন ওয়ান ডে কাপের ছ’টি ম্যাচেও খেলতে নামবেন ক্যারিবিয়ান তারকা।

হোল্ডারের কাউন্টি খেলা আপাতত নির্ভর করছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ডের নো অবজেকশন সার্টিফিকেটের উপর। আইসিসি বিশ্বকাপের মাস দুয়েক আগে কাউন্টি মরশুম শুরু হয়ে যাচ্ছে। ওয়ান ডে ক্রিকেটের ফ্ল্যাগশিপ টুর্নামেন্টের প্রস্তুতির জন্য মে মাসের শুরুর দিকেই আয়ারল্যান্ড উড়ে যাওয়ার কথা ওয়েস্ট ইন্ডিজের।

আরও পড়ুন: বিশ্বকাপের আগেই আছড়ে পড়তে পারে গেইল ঝড়

তবে ইংল্যান্ডের মাটিতে বিশ্বকাপের আগে ওদেশের পরিবেশ-পরিস্থিতি ও পিচের গতিপ্রকৃতির সঙ্গে সড়গড় হওয়ার সুযোগ পাবেন বলেই হোল্ডারের এনওসি পেতে সমস্যা হবে না বলে মনে করা হচ্ছে।

হোল্ডার নিজেও বিশ্বকাপের আগে ইংল্যান্ডের মাটিতে ক্রিকেট খেলতে আগ্রহী। নর্দাম্পটনশায়ারের সঙ্গে চুক্তির পর হোল্ডার বলেন, ‘দীর্ঘ দিন ধরেই ইংল্যান্ডের মাটিতে ঘরোয়া ক্রিকেট খেলার ইচ্ছা আমার৷ সম্পূর্ণ আলাদা পরিবেশে নিজেকে যাচাই করার এর থেকে ভালো সুযোগ আর হয় না৷ বিশ্বকাপের আগে ইংল্যান্ডে নিজের দক্ষতা যাচাই করে নিতে পারব বলেই আমার বিশ্বাস৷’