স্টাফ রিপোর্টার, ডায়মন্ড হারবার: দীর্ঘদিন ধরেই রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠির সঙ্গে রাজ্য সরকারের দ্বৈরথ লেগে রয়েছে৷ সম্প্রতি রাজ্যপাল সম্পর্কে রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন যে রাজ্যপাল অগণতান্ত্রিক কাজ করছেন৷

দিনের পর দিন নিজেকে এনডিএ সরকারের মুখপাত্র হিসেবে তুলে ধরেছেন৷ এই মন্তব্যের বিরুদ্ধে এদিন দক্ষিণ ২৪ পরগণার ডায়মন্ড হারবারের মহিলা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন অনুষ্ঠানে এসে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে মুখ খুললেন রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠি৷

আরও পড়ুন: রাজ্যে শাসক দলকে হারাতে মোদীর স্লোগান ‘চলো পালটাই’

তিনি বলেন “যাঁরা এধরনের মন্তব্য করছেন তাঁরা আগে আমার অফিসে এসে আয়নায় মুখ দেখুন৷ তাঁদের মুখের ময়লা গুলি ধুয়ে তারপর কথা বলুন৷” নিজেদের মধ্যে কাঁদা ছোঁড়াছুড়ি বন্ধের কথা ও বলেন রাজ্যপাল৷

আজ দক্ষিণ ২৪ পরগনার ডায়মন্ড হারবারের মহিলা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন অনুষ্ঠানে যান রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠি৷ সেখানেই তাঁকে এপ্রসঙ্গে প্রশ্ন করা হলে নিজের রাগ উগরে দেন রাজ্যপাল৷ তিনি বলেন এই ধরনের মন্তব্য করা অসমিচিন৷ কিন্তু যাঁরা এটা করছেন তাঁদের মুখের ময়লা ধুয়ে তারপর কথা বলা উচিত৷

আরও পড়ুন: বাবুল-রূপা থাকলেও ত্রিপুরায় মুকুল রায়কে ‘সাইড’ করল বিজেপি

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।