কলকাতা: এ রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ইতিমধ্যেই পেরিয়ে গেছে ১০০। বৃহস্পতিবার এই তথ্য জানিয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রক। নিজেদের ওয়েবসাইটে একথা উল্লেখ করেছে স্বাস্থ্য মন্ত্রক। একইসঙ্গে ১৬ জন সুস্থ হয়ে ওঠার কথাও জানানো হয়েছে।

কেন্দ্রের ওয়েবসাইট জানাচ্ছে, রাজ্যে করোনা আক্রান্তের মোট সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১০৩। এর মধ্যে সেরে উঠেছেন ১৬ জন। তথ্য জানাচ্ছে, মৃত্যু হয়েছে ৫ জনের। অর্থাৎ রাজ্যে এখনও ৮২ জনের শরীরে করোনার অস্তিত্ব রয়েছে।

অন্যদিকে বুধবার রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের তরফে যে বুলেটিন প্রকাশ করা হয়েছে সেখানে উল্লেখ, বুধবার পর্যন্ত রাজ্য ৭১ জনের শরীরে করোনা আছে। নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও সেই তথ্য জানিয়েছিলেন। এরফলে একদিকে কেন্দ্রের তথ্য ও অন্যদিকে রাজ্যের তথ্যের মধ্যে সাধারণ মানুষ সঠিক বুঝতে পারছেন না আক্রান্তের সংখ্যা।

অপরপক্ষে, দেশে লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা। এবার একদিনে মৃত্যু হল ১৭ জনের। আক্রান্তের সংখ্যা বেঁড়ে দাঁড়াল ৫৭৩৪। যা দেশের জন্য যথেষ্ট উদ্বেগজনক। শেষ ২৪ ঘণ্টায় দেশে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৫৪৭ জন। মোট আক্রান্ত ৫৭৩৪ জনের মধ্যে বর্তমানে ৪৭৩ জন সুস্থ হয়ে উঠেছেন। দেশে মোট মৃত্যু হয়েছে ১৬৬ জনের।

তবে দেশে এখনও গোষ্ঠী সংক্রমণ শুরু হয়নি বলে জানিয়েছে ওয়ার্ল্ড হেলথ অর্গানাইজেশন। ‘হু’ এর দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার প্রধান আধিকারিক পুনম ক্ষেত্রপাল সিং জানিয়েছেন, যখন সংক্রমণের উৎস খুঁজে পাওয়া যায় না, তখন সেই দেশে সামাজিক সংক্রমণ শুরু হয়েছে বলা যেতে পারে। কিন্তু ভারতের ক্ষেত্রে বর্তমানে যে সমস্ত সংক্রমণের খবর পাওয়া যাচ্ছে, তাতে তার উৎস সন্ধান করা সম্ভব হচ্ছে। তাই ভারতে যে গোষ্ঠী সংক্রমণ শুরু হয়ে গিয়েছে, একথা এখনই বলা যাচ্ছে না।