স্টাফ রিপোর্টার , কলকাতা : সকাল থেকেই ভ্যাপসা গরম। কেমন থাকবে আজ কলকাতার আবহাওয়া তা স্পষ্ট হয়ে যাচ্ছে সকালের পরিস্থিতিতেই। আবহাওয়া দফতরও স্পষ্ট করে জানিয়ে দিল যে আজ দিনভর বিশ্রী গরম সইতে হবে কলকাতাবাসীকে। পাশাপাশি থাকবে আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তি। বেশ কিছু দিন ধরেই দেখা যাচ্ছে গরম বেড়েই চলেছে শহরে। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা সোমবারেই ৩৭ ছাড়িয়েছিল। আজ তা ৩৮এ পৌঁছাতে পারে বলে জানাচ্ছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর।

আজ মঙ্গলবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৫.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি বেশি। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা সোমবার ছিল ৩৭.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে তিন ডিগ্রি বেশি। আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ সর্বোচ্চ ৮৮ শতাংশ, সর্বনিম্ন ৩১ শতাংশ। বৃষ্টির কী কোনও সম্ভাবনা রয়েছে? হাওয়া অফিস স্পষ্ট জানাচ্ছে এমন কোনও সম্ভাবনা আপাতত নেই। কিন্তু বেশি গরম হলে পরের দিকে তা পরিবর্তন হতেই পারে, কারণ বিগত বেশ কয়েকদিন ধরেই এই অস্বস্তিকর পরিস্থিতি চলছে। আজ তা আরও কিছুটা বেড়েছে। সকাল থেকে এতটা অস্বস্তি হচ্ছিল না, যেমনটা আজ সকাল থেকেই অনুভূত হচ্ছে।

গত সপ্তাহে শনিবার সকালে কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৪.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস , যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি। এতদিন তা তেইশের ঘরে থাকছিল। এবার তা আরও অনেকটাই বেড়ে গিয়েছে। শুক্রবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৬.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি বেশি ছিল। এখন যা ৩৮ ছুঁই ছুঁই। আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমান ছিল সর্বোচ্চ ৯২ শতাংশ তাই বেলায় থাকছিল ব্যাপক অস্বস্তি। সকালে আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমান মাত্র ১৮ শতাংশ থাকছিল। যা স্বস্তিদায়ক ছিল। তবে এই তারতম্যের জন্য শহরে দিচ্ছিল আধো শুষ্ক হাওয়া। ঘামও হচ্ছিল আবার তা এমন আর্দ্রতার জন্য মুহূর্তে শুকিয়ে যাচ্ছিল। তবে এখন তা সম্পূর্ণ উলটে গিয়েছে।

মূলত গত সপ্তাহের শুরু থেকেই পশ্চিমী ঝঞ্ঝার প্রভাব পড়ছিল কলকাতার আবহাওয়ার উপরে। মঙ্গলবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৩.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি বেশি। সম্প্রতি তা ২৫ ডিগ্রিতেও পৌঁছে গিয়েছিল। অর্থাৎ স্বাভাবিকের থেকে তা প্রায় চার ডিগ্রি বেশি হয়ে গিয়েছিল তখনই। গত সপ্তাহের শুরুতে সোমবার শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৩.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি ছিল। ওই সময়ে সন্ধ্যা থেকে ঠাণ্ডা হাওয়ায় শহরের আবহাওয়াকে স্বস্তি দিচ্ছিল, এখন সে সব কিছু হচ্ছে না।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.