স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় আজ দিনভর বৃষ্টির পূর্বাভাস দিল হাওয়া অফিস৷ তবে ভারি বৃষ্টি নয়। মাঝারি বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে শহর কলকাতা ও শহরতলিতে।উত্তরবঙ্গের পাঁচ জেলাতেও আগামী ৪৮ ঘন্টায় ভারী বৃষ্টির সতর্কতা রয়েছে।

আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, সক্রিয় মৌসুমী অক্ষরেখার প্রভাবেই বৃষ্টি। নিম্নচাপটি বর্তমানে মধ্যপ্রদেশ ও উত্তরপ্রদেশের ওপর অবস্থান করছে। মৌসুমী অক্ষরেখা নিম্নচাপটি জামসেদপুর দিঘা হয়ে উত্তর পূর্ব বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত। পশ্চিমবঙ্গে উপকূলেও একটি ঘূর্ণাবর্ত তৈরি হয়েছে। ফলে দক্ষিণবঙ্গে জলীয় বাষ্প ঢুকছে এবং মেঘ তৈরি হয়ে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত চলবে। বেশি বৃষ্টি হবে দক্ষিণ ২৪ পরগনা, ঝাড়গ্রাম, দুই মেদিনীপুরে। আগামী তিন-চারদিন উত্তরবঙ্গে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা। শনিবার পর্যন্ত উত্তরের পাঁ জেলায় বৃষ্টি।

আবহাওয়া অফিসের অধিকর্তা সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “আগামী ৪৮ ঘণ্টায় উত্তরবঙ্গের বেশ কিছু জেলা যেমন আলিপুরদুয়ার, দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি, কোচবিহার ও কালিম্পংয়ে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে । এছাড়াও, আগামী ৪৮ ঘণ্টায় কলকাতায় বজ্রবিদ্যুৎসহ বৃষ্টিপাত হতে পারে । তবে, কলকাতায় ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা তেমন নেই ৷ স্বল্প থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত হতে পারে কলকাতায় ৷ এছাড়াও, উত্তর ২৪ পরগনা, ঝাড়গ্রাম, পূর্ব মেদিনীপুর, পশ্চিম মেদিনীপুর, ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে ।”

আজ কলকাতায় দিনে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩০.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস ৷ যা স্বাভাবিকের থেকে দু’ডিগ্রি কম। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল২৭.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস যা স্বাভাবিকের থেকে দু’ডিগ্রি বেশি। আগামী ২৪ ঘণ্টায় কলকাতায় দিনে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩১ ডিগ্রি সেলসিয়াস ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি থাকবে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

জীবে প্রেম কি আদৌ থাকছে? কথা বলবেন বন্যপ্রাণ বিশেষজ্ঞ অর্ক সরকার I।