কলকাতা : শহরের মতোই দক্ষিণবঙ্গের সমস্ত জেলায় মার্চ মাসের শুরুতেই প্রকট হচ্ছে গরম। পশ্চিমের জেলা হোক কিংবা গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গের জেলা সর্বত্র সকাল থেকেই গরমের দাপট অনুভুত হচ্ছে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে তা অস্বস্তিকে আরও বাড়াচ্ছে।

আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস অনুযায়ী আজ মঙ্গলবার ও আগামী ২৪ ঘন্টায় দক্ষিণবঙ্গের আবহাওয়া কেমন থাকবে? হাওয়া অফিস জানাচ্ছে, দক্ষিনবঙ্গের সমস্ত জেলার আবহাওয়া শুকনোই থাকবে। আগামী ২-৩ দিন দিনের তাপমাত্রা স্বাভাবিকের থেকে ২ থেকে ৪ ডিগ্রি পর্যন্ত বেশি থাকতে পারে। তবে আগামী দুদিন রাতের তাপমাত্রার সেরকম কোনও পরিবর্তন না হলেও, তারপর দু থেকে তিন দিন গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গের তাপমাত্রা ২ থেকে ৩ ডিগ্রি পর্যন্ত কমতে পারে। সেদিকেই তাকিয়ে থাকবে মানুষ, কারণ এখনই এই হাল হলে প্রকৃত গ্রীষ্মে কী হবে তা ভেবেই হয়রান সাধারণ মানুষ।

উত্তরবঙ্গে কেম্ন থাকবে আবহাওয়া? হাওয়া অফিস জানিয়েছে আজ মঙ্গলবার বজ্রবিদ্যুৎ-সহ হাল্কা বৃষ্টি হতে পারে দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি, কালিম্পং, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহারে। এছাড়া বাকি জেলাগুলি অর্থাৎ উত্তর দিনাজপুর, দক্ষিণ দিনাজপুর এবং মালদহের আবহাওয়া শুকনো থাকবে। আগামী ২৪ ঘন্টায় দার্জিলিং, কালিম্পং-এর বজ্রবিদ্যুৎ-সহ হাল্কা বৃষ্টি হলেও, বাকি জেলাগুলির আবহাওয়া শুকনো থাকবে। আগামী দুই-একদিন দিনের তাপমাত্রা স্বাভাবিকের থেকে ২ থেকে ৪ ডিগ্রি বেশি থাকবে। তবে আগামী ২৪ ঘন্টায় রাতের তাপমাত্রার সেরকম কোনও পরিবর্তন না হলেও, তারপর দু-তিনদিনের জন্য তাপমাত্রা ২থেকে ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমতে পারে।

এদিকে কলকাতায় স্বাভাবিকের অনেকটাই উপরে থাকছে সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা। আজ মঙ্গলবারও বেলায় ব্যাপকভাবে ভোগাবে বাড়ন্ত সর্বোচ্চ তাপমাত্রা। গরমকে আরও অস্বস্তিকর করবে বেল্র অতিরিক্ত আর্দ্রতার পরিমান। মঙ্গলবার শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৩.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে তিন ডিগ্রি বেশি। সোমবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৫.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে চার ডিগ্রি বেশি। আর্দ্রতার পরিমান সর্বোচ্চ ৯৫ শতাংশ, সর্বনিম্ন ২৪ শতাংশ। সঙ্গে সকাল থেকেই মেঘলা আকাশ। বেলা বাড়লে মেঘ কাটবে, বাড়বে গরমের দাপট। সঙ্গী হবে বিশ্রী ঘাম। রবিবারে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৬.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এর আগে থেকেই এমন হাঁসফাঁস অবস্থার মুখোমুখি হয়েছে রাজ্যবাসীকে। সকাল থেকে চড়া রোদের সঙ্গে ঘামে অস্বস্তি বেড়েছে শহরবাসীর। আর্দ্রতা রয়েছে প্রায় ৯৫ শতাংশ। সুতরাং প্রচণ্ড ঘাম ও অস্বস্তি অনুভূত হচ্ছে।

আলিপুর আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর, মেঘলা আকাশ থাকলেও দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টির কোনও সম্ভাবনা নেই। ফলে প্যাচ–প্যাচে গরমের সম্মুখীন হতে হবে। তাপমাত্রা আরও বাড়তে পারে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে গরম আরও বাড়তে পারে। সূর্যের তাপে নাজেহাল হবে বঙ্গবাসী।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।