ফাইল ছবি

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: সাময়িক স্বস্তি দিতে ধেয়ে আসছে ঝড়, সঙ্গী হতে পারে বজ্র বিদ্যুৎসহ বৃষ্টি। এমনই সতর্কতা হাওয়া অফিসের। টানা ভ্যাপসা গরম এবং কড়া রোদে নাজেহাল অবস্থা রাজ্যবাসীর, সেই গরম থেকে সাময়িক স্বস্তি মিলতে পারে বলে জানাচ্ছে হাওয়া অফিস। স্থানীয় মেঘেই এই বৃষ্টির সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে বলে জানাচ্ছেন আবহবিদরা।

সন্ধে ৬টা থেকে ৪৫ কিলোমিটার বেগে বয়ে যাবে ঝোড়ো হাওয়া। বজ্রপাত সহ রয়েছে বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে বীরভূম, মুর্শিদাবাদ, বর্ধমান সহ পশ্চিমবঙ্গের একাধিক অঞ্চলে কিছুক্ষণের মধ্যেই শুরু হবে বৃষ্টি। ইতিমধ্যে বৃষ্টিপাত শুরু হয়েছে নদীয়া, বর্ধমান ও বীরভূমে। এক থেকে তিন ঘণ্টা এক নাগাড়ে বৃষ্টি হবে বলে জানিয়েছে হাওয়া অফিস।এদিকে আর কিছুক্ষণের মধ্যে দক্ষিণবঙ্গেও হানা দেবে কালবৈশাখী। গরম থেকে খানিক স্বস্তি পেতে চলেছে হাওড়া, হুগলি সহ বেশ কিছু অঞ্চল। এখানেও এক থেকে তিন ঘণ্টা বৃষ্টিপাত হতে পারে বলে জানিয়েছে হাওয়া অফিস। কলকাতাতে ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে ঝোড়ো হাওয়া।

তবে আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানাচ্ছে এই ঝড় বৃষ্টিতে সাময়িক স্বস্তি মিললেও পড়ে ফের তাপমাত্রা বাড়বে। কলকাতার তাপমাত্রাও পৌঁছতে পারে ৩৯ ডিগ্রির কাছাকাছি। স্বাভাবিকের থেকে বৃদ্ধি পেয়েছে সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা।

গত কয়েকদিনে ক্রমে বেড়েছে শহরের পারদ। গত তিন দিনে কলকাতার তাপমাত্রার দিকে চোখ রাখলেই বিষয় স্পষ্ট হবে। শুক্রবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৬.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৭.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি বেশি। সর্বোচ্চ আর্দ্রতা ৯০ শতাংশ, সর্বনিম্ন ৩০ শতাংশ। বৃহস্পতিবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৫.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিক। বেড়েছে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা।

এদিনের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৭.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি । এদিনের সর্বোচ্চ আর্দ্রতা ৯৫ শতাংশ, সর্বনিম্ন ৩৫ শতাংশ। বুধবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৬.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৬.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি। সর্বোচ্চ আর্দ্রতা ৯৬ শতাংশ, সর্বনিম্ন ৩৬ শতাংশ।