কলকাতা: নভেম্বরের মাঝমাঝি সময় থেকেই শীতের কামড় বেশ টের পাচ্ছেন কলকাতাবাসী। কলকাতা-সহ সমগ্র পশ্চিমবঙ্গে তাপমাত্রা যে কমবে সে বার্তা আগেই দিয়েছিল হাওয়া অফিস। সপ্তাহের শুরু থেকেই যে কলকাতার পারদ নামবে তা জানিয়েছিল আলিপুর আবহাওয়া দফতর। সোমবার থেকেই পারদ পতন জারি রয়েছে কলকাতা-সহ গোটা দক্ষিণবঙ্গে।

আলিপুর আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর, এই ঠাণ্ডা বেশ কয়েকদিন চলবে। বৃহস্পতিবার প্রধানত পরিষ্কার আকাশ। রোদ ঝলমলে দিন থাকবে। কলকাতার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ২৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকবে ১৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস, স্বাভাবিকের থেকে যা এক ডিগ্রি কম। বাতাসে আর্দ্রতার পরিমাণ সর্বোচ্চ ৬১% সর্বনিম্ন ৪১%। আপাতত বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা নেই।

আরও পড়ুন – বৃহস্পতিবারে কতটা কমল সবজির দাম, দেখে নিন বাজারদর

বুলবুলের পরবর্তী সময়ে তাপমাত্রার পতন হলেও তা শীতকে থিতু করবে না বলেই মনে করছেন আবহবিদেরা। তাঁদের অনেকের মতে, পশ্চিমী ঝঞ্ঝার প্রভাবে কাশ্মীরে শুরু হয়েছে তুষারপাত। কিন্তু বুলবুলের প্রভাবে বঙ্গোপসাগর থেকে জোলো হাওয়া ঢুকছে এবং সেই হাওয়া উত্তুরে বাতাসকে বাংলায় ঢুকতে বাধা দিচ্ছে। গাঙ্গেয় বঙ্গের উপরে বুলবুলের প্রভাব কাটলেই বাধাহীন ভাবে ঠান্ডা উত্তুরে হাওয়া বয়ে আসতে পারে বাংলার দিকে। তাতেই পারদ পতন হবে।

কিন্তু সেই প্রভাব সাময়িক হবে। সাধারণত, কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৪-১৫ ডিগ্রিতে থিতু না-হলে কলকাতায় শীত পড়ার ঘোষণা করে না হাওয়া অফিস। সেই তাপমাত্রার পতনও ধাপে ধাপে হয়। তাই উত্তুরে হাওয়ার প্রভাবে ঝুপ করে কিছুটা পারদ পতন হলেও তাকে শীত বলতে নারাজ আবহবিদেরা।