স্টাফ রিপোর্টার , কলকাতা : নিম্নচাপ টেনে নিয়ে গেল ওডিশা ও ছত্তিশগড়। মরশুমের ঘাটতির দিন বদল হতে হতেও হল না। অথচ সোম ও মঙ্গলবার ভালোই ব্যাটিং শুরু করেছিল বৃষ্টি। দফাউ দফায় ঝেঁপে বৃষ্টিতে স্বস্তি মিলেছিল। কিন্তু সন্ধ্যার পর থেকে বৃষ্টি বন্ধ হতেই যথারীতি অস্বস্তিকর গরম শুরু হয় কলকাতা ও তার পার্শ্ববর্তী অঞ্চলে।

মঙ্গলবার সন্ধে পর্যন্ত শেষ ২৪ ঘণ্টায় আলিপুরে মোট বৃষ্টি হয়েছে ২৩.৩ মিলিমিটার। আজ সকাল সাড়ে আটটা পর্যন্ত বৃষ্টির পরিমাণ ৭.৬ মিলিমিটার। রাত সাড়ে আটটা থেকে সকাল পর্যন্ত বৃষ্টির পরিমাণ ৮.০ মিলিমিটার। বাতাসে আর্দ্রতার পরিমাণ সর্বোচ্চ ৯৫ শতাংশ সর্বনিম্ন ৭৬ শতাংশ।

শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৬.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিক। মঙ্গলবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩২.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি কম। ওইদিন রাতের পারদ, অর্থাৎ সর্বনিম্ন তাপমাত্রাও ছিল ২৭.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বৃষ্টির জেরে রোদের উত্তাপ মালুম হয় নি। তবে স্বাভাবিক নিয়মে আপেক্ষিক আর্দ্রতা ৯০ শতাংশের উপরে থাকায় দিনভর গুমোট ভাব জারি ছিল।

বুধবার সকাল থেকেই কখনও কালো মেঘে ঢেকেছে আকাশ। হাওয়া অফিসের তথ্য ৭৫ শতাংশ ঢেকে রয়েছে মেঘে। জোর বৃষ্টি না হলেও ঝিরঝিরে বৃষ্টি চলেছে কিছুক্ষণ। আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, নিম্নচাপের প্রভাব খানিকটা বুধবারও থাকবে। দক্ষিণবঙ্গে কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে বৃষ্টি হতে পারে। তবে আপাতত দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে বৃষ্টি ধীরে ধীরে কমবে। মঙ্গলবার শহরের তাপমাত্রাও ছিল কম। কলকাতায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা নামে ৩২.১ ডিগ্রি সেলসিয়াসে।