মুম্বই: সফল ব্যবসায়ে মহিন্দ্র গোষ্ঠীর লগ্নি অব্যাহত থাকবে এবং সেই ভাবে ভবিষ্যতের জন্য প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে ‌। এই শিল্প গোষ্ঠীর চেয়ারম্যান আনন্দ মহিন্দ্র শুক্রবার বার্তা দিয়েছেন। এদিন তিনি সংস্থার বার্ষিক সাধারণ সভায় শেয়ারহোল্ডারদের উদ্দেশ্যে ভাষণ দিচ্ছিলেন।

সেখানে তিনি বলেন, করোনা অতি মহামারী জীবনের পরিবর্তন করে দিচ্ছে উপর থেকে নিচে এবং অর্থনীতিকে মুখোমুখি হতে হচ্ছে অনিশ্চিত ভবিষ্যতের দিকে। পাশাপাশি তিনি জানিয়েছেন, এটা তাদের পক্ষে একটা সুযোগ নতুনভাবে চিন্তা করার , নতুন কিছু খুঁজে এগোন এবং আর্থিক দিক থেকে গোলে পৌঁছনো।

পুরনো দিনের স্মৃতিতে ফিরে এই শিল্প গোষ্ঠীর সব থেকে খারাপ সময় ২০০২ সালে যখন মহিন্দ্র এন্ড মহিন্দ্র শেয়ারের দাম ৫৬ টাকায় নেমে এসেছিল তখন কেমন ভাবে চালানো হয়েছিল সেই প্রসঙ্গ তুলেছেন। তিনি জানান, এই গোষ্ঠী ব্যবস্থা নিচ্ছে যখন চারপাশে কঠিন ভাবে নজর দিচ্ছে আর্থিক রিটার্নের দিকে। তিনি উল্লেখ করেন, ২০০২ সালের পর নিফটিতে ২০১৮ সালে শেয়ার হিসেবে সবচেয়ে ভালো পারফরম্যান্স বলে ঘোষণা করা হয়েছে।

তার বক্তব্য, “অর্থাৎ চরম খারাপ অবস্থা থেকে আবার চরম ভাল অবস্থায় ফেরার ক্ষমতা আমাদের আছে। এবং এটা আমাদের সুখের অভিজ্ঞতা যে চরম খারাপ অবস্থায় ট্রিগার টিপে চরম ভাল অবস্থায় পৌঁছে যাওয়া যায়।” এদিন মহিন্দ্র জানান, পেন্ডুলাম ফের দোলে‌ খারাপ সময় দিকে। ২০১৮ থেকে ঊর্ধ্বমুখী লেখচিত্রে কিছুটা ডুবতে দেখা গিয়েছে। গত দু’বছর গোটা বিশ্বের জন্যই কঠিন সময় এবং আমরা তার থেকে ব্যতিক্রম নয়।

পাশাপাশি নির্দিষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছনোর চেষ্টা করা হয়েছে।‌ তার মতে, বিভিন্ন ফ্রন্টে যুদ্ধ করতে হচ্ছে এবং তথাকথিত মুখোমুখি হতে হচ্ছে অদেখা চরম অবস্থার। তবে এই পরিস্থিতিতেও স্বপ্ন দেখা ছেড়ে দিতে চান না তিনি। এ শিল্পগোষ্ঠী আবার জ্বলে উঠবে কৌশলী ভাবনা চিন্তা করে। তিনি জানিয়েছেন, তাদের কারখানায় ফের গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে, ব্যবসাকে নতুন করে খোঁজা হচ্ছে, অনলাইন মারফত বিক্রিতে সরে আসা হয়েছে এবং ঘুরে দাঁড়ানোর সব রকম চেষ্টা করান হচ্ছে।

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা