কলকাতা: সোমবার জম্মু ও কাশ্মীরের ন্যাশনাল কনফারেন্সের প্রধান তথা কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ফারুখ আবদুল্লার ৮২তম জন্মদিন। আর তার জন্মদিনে টুইটারে শুভেচ্ছাবার্তা জানিয়ে একটি মেসেজ পোস্ট করলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী এবং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বর্ষীয়ান এই নেতার জন্মদিনে তাঁর সুস্বাস্থ্য এবং দীর্ঘায়ু কামনার পাশাপাশি কাশ্মীরের যেকোনো কঠিন পরিস্থিতিতে তাকে স্বাভাবিক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন তৃণমূল সুপ্রিমো।

জম্মু ও কাশ্মীরের ক্ষেত্রে কেন্দ্রীয় সরকারের স্পেশাল স্ট্যাটাস তুলে দেওয়া থেকে শুরু করে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন ইস্যুতে কাশ্মীরের পাশে দাঁড়িয়ে মোদী সরকারের বিরোধিতা করতে দেখা গিয়েছে মুখ্যমন্ত্রীকে। এমনকি চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে পাক-বাহিনীর হামলায় জম্মু ও কাশ্মীরের পুলওয়ামা সেক্টরে শহিদ হয়েছিলেন উনপঞ্চাশ জন ভারতীয় জওয়ান। সেই সময়ে মোদী নিজের বায়োপিক তৈরির শুটিংয়ে ব্যস্ত থাকায় বিরোধী দলের পাশাপাশি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়েরও কড়া সমালোচনার পাত্র হন তিনি।

চলতি বছরের অগস্ট মাসের ৫ তারিখ জম্মু ও কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা তুলে নেওয়ার পর কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে পরিনত হয় কাশ্মীর। সেই সময়ই কেন্দ্রীয় সরকার পাবলিক সেফটি অ্যাক্ট প্রয়োগ করে জম্মু ও কাশ্মীরের সাধারণ মানুষের পাশাপাশি এখানকার বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাদের কার্যত গৃহবন্দী করে রাখে। টানা আড়াই মাস গৃহবন্দী থাকার পরে গত মাসে পরিস্থিতি একটু স্বাভাবিক হলে মুক্ত করে দেওয়া হয় তাঁদের। যদিও এই নিয়েও মোদীকে কটাক্ষ করতে ছাড়েননি পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী।

সূত্রের খবর, কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা তুলে নেওয়ার পর কেটে গিয়েছে সাতাত্তর দিন। বর্তমানে জম্মু ও কাশ্মীরের পরিবেশকে স্বাভাবিক বলেও দাবি করেছেন কেন্দ্রীয় সরকার এবং সেখানাকার রাজ্যপাল। এরই মধ্যে সোমবার জম্মু ও কাশ্মীরের মুখ্যমন্ত্রী ফারুখ আবদুল্লার ৮২ তম জম্নদিন উপলক্ষ্যে বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতা- মন্ত্রীর পাশাপাশি বর্ষীয়ান এই নেতার জন্মদিনে শুভেছাবার্তা দিতে ভোলেননি পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীও।

সোমবার সকালে নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে বর্ষীয়ান এই নেতা তথা মুখ্যমন্ত্রীকে তাঁর জন্মদিনের শুভেছা জানিয়ে তাঁর সুস্বাস্থ্য এবং দীর্ঘায়ু কামনা করেন মমতা বন্দোপাধ্যায়। এছাড়াও জম্মু ও কাশ্মীরের যেকোনো কঠিন পরিস্থিতিতে তাঁকে সবসময় স্বাভাবিক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। প্রসঙ্গত, চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে ‘ইউনাইটেড ইন্ডিয়া র‍্যালি’তে যোগ দিতে কলকাতা এসেছিলেন ফারুখ আবদুল্লাহ।