ইসলামাবাদ: পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান দাবি করলেন ইরান এবং সৌদি আরবের মধ্যে যাতে সংঘাত এড়ানো যায় তার তিনি চেষ্টা করেছেন। এই বিষয়ে ইমরানের বক্তব্য, সৌদি আরব ও ইরানের মধ্যকার টানাপড়েন কাটাতে মধ্যস্থতা করার চেষ্টা এখনো চালিয়ে যাওয়া হচ্ছে। প্রচেষ্টার জেরে খুব ধীরে হলেও অগ্রগতি লাভ করেছে বলে মনে করেন তিনি।

আল-জাজিরা টেলিভিশনকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ইমরান খান এমন দাবি করেছেন। তিনি বলেন, ইরান এবং সৌদি আরবের ব্যাপারে মধ্যস্থতা করার প্রচেষ্টার বিষয়টি এখনও চলমান অবস্থায় রয়েছে এবং সেটা ধীরে ধীরে এগোচ্ছে। তার এই পূর্ণাঙ্গ সাক্ষাৎকার বুধবার আল-জাজিরা টেলিভিশনে সম্প্রচারিত হবে।

ইমরান খান বলেন, “ইরান ও সৌদি আরবের মধ্যে সামরিক সংঘাত এড়ানোর জন্য আমরা সর্বোচ্চ স্তরে চেষ্টা চালিয়েছি এবং এ ব্যাপারে আমরা বেশ সফল হয়েছি।”

এর আগে ইমরান খান পাকিস্তানের জাতীয় সংসদে দেওয়া ভাষণে জানিয়েছিলেন, তারা আঞ্চলিক উত্তেজনা নিরসনের জন্য কাজ করছেন কিন্তু কিছু শক্তি আছে যারা ইরান এবং সৌদি আরবের মধ্যকার উত্তেজনার অবসান চায় না। তবে ইরান এবং সৌদি আরবের মধ্যে সম্পর্ক উন্নত করার জন্য আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা চালিয়েছি।

প্রসঙ্গত, পাক প্রধানমন্ত্রী গত বছরের ১৩ অক্টোবর ইরান সফর করেন এবং ইরানের সর্বোচ্চ নেতাসহ গুরুত্বপূর্ণ প্রশাসনিক কর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেছিলেন। এরপর আবার তিনি সৌদি আরব সফর করেছিলেন এবং সেখানে অনেকের সঙ্গে কথাবার্তা বলেছিলেন।

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা