file image

কলকাতা: করোনার জেরে এমনিতেই পথ-ঘাটে লোকজনের সংখ্যা কম। এই পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে যাত্রী তোলার জেরে এমনিতেই বাসমালিকদের আয় কমেছে। ভাড়া বাড়ানো নিয়ে সরকারের সঙ্গে একাধিকবার বৈঠক হয়েছে বাসমালিক সংগঠনের।

যদিও বাসভাড়া বাড়ানোয় সায় নেই সরকারের। তবে এবার বাস-মিনিবাস মালিকদের ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত কর মুকুবের ঘোষণা রাজ্য সরকারের।

করোনা পরিস্থতিতে ব্যাপক ক্ষতির মুখে পরিবহণ শিল্প। যাত্রী সংখ্যা কমে যাওয়ায় এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে গাড়ি চালানোয় ভাড়া বাড়ানোর দাবিতে সরব হন বাসমালিকরা। রাজ্য সরকারের সঙ্গে দফায়-দফায় বৈঠক হয় বাসমালিক সংগঠনের। যদিও বাসভাড়া বাড়ানোয় সায় দেয়নি রাজ্য সরকার।

বাসমালিকদের সাহায্যার্থে আর্থিক প্যাকেজ ঘোষণা করা হলেও তাতে বিশেষ আমল দেননি বাসমালিকেরা। তাঁদের দাবি, পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে বাস চালিয়ে তাঁদের বিপুল আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হতে হচ্ছে। এই অবস্থায় অনেক বাসমালিকই পথে প্রতিদিন গাড়ি নামাচ্ছেন না।

বাসমালিকদের সমস্যার বিষয়টি পর্যালোচনা করেছে রাজ্য সরকারও। বৃহস্পতিবার পরিবহণ নিয়ে বৈঠকে বসে রাজ্য মন্ত্রিসভা। সেই বৈঠকেই বাসমালিকদের জন্য এবার করছাড়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার।

বাস-মিনিবাসে ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত কর মুকুবের সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার। একইসঙ্গে পুরনো কর মেটালে জরিমানা মুকুবেরও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। পুরো বছরের জন্য বাস-মিনিবাসে পারমিট ফি ছাড় দেবে রাজ্য সরকার।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও