নাগপুর: বয়স যে কোনও বাধা নয়, ফের তা প্রমাণ করে দেখালেন ওয়াসিম জাফর৷ ৪১ বছর বয়সেও মাইলস্টোন টপকে গেলেন ভারতীয় দলের এই প্রাক্তন ওপেনার৷

রঞ্জি ট্রফিতে ১২ হাজার রানের মাইলস্টোন টপকে গেলেন জাফর৷ তিনিই একমাত্র ক্রিকেটার, যিনি এই নজির গড়লেন৷ মঙ্গলবার বিদর্ভ ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন স্টেডিয়ামে কেরলের বিরুদ্ধে হাফ-সেঞ্চুরি করেন বিদর্ভের এই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান৷ এদিন ৫৭ রানের ইনিংস খেলে আউট হন জাফর৷

এদিন টস হেরে প্রথমে ব্যাটিং পায় বিদর্ভ৷ মাত্র চার রানে প্রথম উইকেট হারায় গত দু’বারের রঞ্জি চ্যাম্পিয়নরা৷ তারপর ব্যাটিং করতে নামেন জাফর৷ এদিন ব্যক্তিগত ১৯ রানে পৌঁছতেই ১২ হাজার রানের মাইলস্টোন স্পর্শ করেন ভারতীয় দলের প্রাক্তন এই ব্যাটসম্যান৷ বিদর্ভ ছাড়াও দীর্ঘদিন মুম্বইয়ের হয়ে রঞ্জি ট্রফি খেলেছেন জাফর৷

২০১৯-২০ মরশুমের আগে পর্যন্ত জাফরের ঝুলিতে রঞ্জি রান ছিল ১১,৭৭৫৷ মরশুমের শুরুতে রঞ্জি ট্রফিতে ১৫০ ম্যাচ খেলে ইতিহাস সৃষ্টি করেন তিনি৷ এই টুর্নামেন্টে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলার কৃতিত্ব তাঁরই দখলে৷ তারপর এদিন প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে রঞ্জি ট্রফিতে ১২ হাজার রানের মাইলস্টোন টপকে যান জাফর৷ এদিনের পর রঞ্জি ট্রফিতে তাঁর রানসংখ্যা ১২,০৩৮৷

মুম্বইয়ের এই ডানহাতি ওপেনারের প্রথমশ্রেণির ক্রিকেটে অভিষেক হয়েছিল ১৯৯৬-৯৭ মরশুমে৷ ভারতীয় ঘরোয়া ক্রিকেটে যিনি কিংবদন্তি হিসেবে পরিচিত৷ ঘরোয়া ক্রিকেটে ধারাবাহিক পারফরম্যান্স করে ভারতীয় দলে জায়গা করেন নেন মুম্বইয়ের এই ওপেনার৷

২০০০ সালে ঘরের মাঠে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে টেস্ট অভিষেক হয় জাফরের৷ দেশের হয়ে ৩১টি টেস্ট খেলেছেন তিনি৷ দেশের শেষ টেস্ট খেলেছেন ২০০৮ সালে সেই দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধেই৷ টেস্টে পাঁচটি শতরান-সহ ১৯৪৪ রান রয়েছে তাঁর ঝুলিতে৷ এছাড়াও দেশের হয়ে দু’টি ম্যাচে প্রতিনিধিত্ব করেন জাফর৷

রঞ্জি ট্রফিতে সেরা পাঁচ রান সংগ্রাহক:

ওয়াসিম জাফর- ১২,০৩৮
অমল মজুমদার- ৯,২০২
দেবেন্দ্র বুন্দেলা- ৯,২০১
মিঠুন মানহাস-৮,৫৫৪
যশপাল সিং- ৮,৫২৭

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।