শ্রীনগর : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে একেবারে মিথ্যাবাদী বললেন প্রবীণ ন্যাশনাল কনফারেন্সের নেতা তথা জম্মু কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আবদুল্লা৷ প্রবীণ এই নেতা দাবি করেন তিনিও গৃহবন্দি রয়েছেন অথচ সে কথা বলছে না স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ৷

ফারুক আবদুল্লার বক্তব্য, কেন্দ্রীয় সরকার তাঁকে গৃহবন্দি করেই রেখেছে৷ তিনি অভিযোগ করেন,তাঁর বাড়ির দরজায় তালা ঝুলিয়ে রেখেছে সরকার। ৮১ বছর বয়সি এই প্রবীণ নেতা বলেছেন,‘‘ লোকসভায় অমিত শাহ বলেছেন ফারুক আবদুল্লাকে গ্রেফতার করা হয়নি গৃহবন্দি করে রাখা হয়নি। কিন্তু তা তো ঠিক নয়৷ আমি তো গৃহবন্দি রয়েছি ৷ আমার খুব খারাপ লাগছে যে কিভাবে একজন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হয়ে তিনি এরকম মিথ্যে কথা বলছেন।’’

প্রবীন এই নেতা প্রশ্ন তুলেছেন, কেন তিনি নিজের বাড়ির ভিতরে বসে থাকবেন যেখান গোটা রাজ্যে আগুণ জ্বলছে এবং জনগণকে ধরে ধরে জেলে পাঠান হচ্ছে৷ সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে রীতিমতো উত্তেজিত এবং আবেগপ্রবণ হতে দেখা যায় ফারুক আবদুল্লাকে৷ তাঁর কথায়, ‘‘যাতে বের হতে না পারা যায় তাই দরজায় তালা লাগিয়ে দেওয়া হয়েছে ৷ আমার প্রশ্ন এরা কারা যে আমাকে আটকে রেখেছে যেখানে বলা হচ্ছে আমি গৃহবন্দি নই৷’’

ফারুককে গৃহবন্দি করার কথা না বলা হলেও রাজ্যের প্রাক্তন দুই মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি এবং ওমর আবদুল্লাকে গৃহবন্দির করে রাখা হয়েছিল বলে আগেই জানিয়েছিল কেন্দ্র ৷ পরে তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে বলেও জানান হয় ৷ তবে কবে তাদের ছাড়া হতে পারে সে বিষয়ে কোনও ইঙ্গিত মেলেনি৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।