নয়াদিল্লি: সদ্য সব ধরণের ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়েছেন৷ আর অবসরের পরেই বিতর্কের কেন্দ্রে ভারতের প্রাক্তন তারকা ক্রিকেটার গৌতম গম্ভীর৷

দু’বারের বিশ্বকাপজয়ী গম্ভীরের বিরুদ্ধে জারি হয়েছে জামিনযোগ্য গ্রেফতারি পরোয়ানা৷ খবর দাবানলের মতো ছড়িয়ে পড়তে সাধারণ ক্রিকেট অনুরাগী থেকে ক্রিকেটাররা ভ্রু কুচকাচ্ছেন৷

একটি রিয়াল এস্টেট সংক্রান্ত জালিয়াতি মামলায় ফেঁসে গিয়েছেন ভারতের প্রাক্তন তারকা ওপেনার৷ রিয়াল এস্টেস্ট কোম্পানির ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডারের ভূমিকায় ছিলেন গম্ভীর৷ তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ একাধিকবার শুনানির দিনে গম্ভীরকে ডাকা হলেও আদালতে হাজিরা দেননি গম্ভীর৷ সেকারণেই তাঁর বিরুদ্ধে এবার জামিনযোগ্য গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে৷

উল্লেখ্য দিল্লির গাজিয়াবাদ অঞ্চলের ইন্দ্রপুরামে রুদ্র বিল্ডওয়েল রিয়েলিটি প্রাইভেট লিমিটেড নামের এক নির্মীয়মান আবাসন প্রকল্পের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডারের ভূমিকায় ছিলেন গম্ভীর৷ ১৭জন ক্রেতার অভিযোগ, ২০১১ সালে এই প্রকল্পে ২ কোটি টাকা মূল্যে আবাসনের ফ্ল্যাটের অগ্রিম বুকিং করলেও সেই ফ্ল্যাটের চাবি পাননি তারা৷ পরে নির্মীয়মান প্রকল্পটি বাধা পড়ে৷

২০১৬ সালে ১৭ জন ক্রেতার অভিযাগের ভিত্তিতেই দিল্লির সাকেত আদালতে আবাসন নির্মীয়মান সংস্থার বিরুদ্ধে মামলা শুরু হয়৷ নির্মীয়মান প্রকল্পের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডার ছাড়াও ভারতের প্রাক্তন বাঁ-হাতি ক্রিকেটারযৌথভাবে ডিরেক্টর পদে ছিলেন বলে জানা গিয়েছে৷ মামলার শুনানির জন্য গম্ভীরকে একাধিকবার ডাকা হলেও আদালতের রায় এড়িয়ে যাওয়ায় এবার তাঁর বিরুদ্ধে জামিনযোগ্য (১০হাজার টাকা) গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হয়েছে৷ নতুন বছরে ২৪ জানুয়ারি গম্ভীরকে আদালতে হাজিরা দিতে হবে৷