মদ্যপানে মোটা হয়। এতদিন ধরে আমারা এটাই শুনে এসেছি। কিন্তু এবার মদে গ্লাসে চুমুক দিয়ে ঝরবে মেদ, কম সঙ্গে সুগার লেভেল। তবে সব মদ নয়। শুধু মাত্র রেড ওয়াইনেই হবে এই কামাল। আমি না, বলছেন আমেরিকার ওরেগন স্টেট ইউনিভার্সিটির ‘কলেজ অব এগ্রিকালচারাল স্টাডিজ’ এর বিশেষজ্ঞরা। তাঁদের দাবি, রেড ওয়াইন খেলে ওজন তো কম হবেই, সেই সঙ্গে নাকি নিয়ন্ত্রণে থাকবে ব্লাড সুগারের পরিমাণও।

আঙুরের মধ্যে রয়েছে এল্যাজিক অ্যাসিড। যা শরীরে ফ্যাটের বৃদ্ধি কমিয়ে দিতে সাহায্য করে। সেই সঙ্গে নতুন করে ফ্যাট জমতে দেয় না। আসলে ফ্যাটি অ্যাসিড থেকে ফ্যাট তৈরি হয়। আর লিভারের ভিতরে ফ্যাটি অ্যাসিডের বিপাক প্রক্রিয়া বাড়িয়ে দেয় এল্যাজিক অ্যাসিড। তাই নতুন করে ফ্যাট তৈরি হয় না। লিভারের কাজ করার ক্ষমতাও বাড়ে। ফলে কমে ফ্যাটি লিভার সংক্রান্ত অসুখও। তবে শুধু মেদ নয় আঙুরে কম হয় সুগার লেভেলও। কারণ এল্যাজিক অ্যাসিডের পাশাপাশি আঙুরে রয়েছে ফেনল অ্যান্টি-অক্সিড্যান্ট ও অ্যান্টি-ফ্যাটিঅ্যাসিড। যা নিয়ন্ত্রণে রাখে ডায়াবেটিস লেভেল।

তবে খুশিতে প্রতিদিন ওয়াইনের বোতল খুলে বসে পড়বেন না। এতে হিতে বিপরীত হবে। সপ্তাহে দুই থেকে তিনদিন আপনি ওয়াইন খেতে পারেন। কিন্তু যত খুশি তত নয়। ১৫০ এমএল পর্যন্ত আপনি ওয়াইন খেতে পারেন। কিন্তু আপনি যদি মদ্যপান না করেন, তাহলে একমুঠো করে লাল আঙুর খান। একই কাজ দেবে।

স্বামীর সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে বস্ত্র ব্যবসাকে অন্যমাত্রা দিয়েছেন।'প্রশ্ন অনেকে'-এ মুখোমুখি দশভূজা স্বর্ণালী কাঞ্জিলাল I