প্রতীতি ঘোষ, বারাকপুর: সামনেই রাজ্যে পুরসভা নির্বাচন। আর তার আগে রাজ্য জুড়ে নির্বাচন কমিশনের উদ্যোগে চলছে ভোটার কার্ড সংশোধন প্রক্রিয়া এবং সংযোজন প্রক্রিয়া। রাজ্যের প্রত্যেকটি বিধানসভার ক্ষেত্রেই চলছে এই কাজ। কিন্তু বারাকপুর মহকুমার অন্তর্গত ১০৭ নোয়াপাড়া বিধানসভায় ভোটার কার্ড সংশোধন প্রক্রিয়ায় গলদ রয়েছে এবং যথাযথ পদ্ধতি মেনে ভোটার কার্ড সংশোধন প্রক্রিয়া চলছে না। এমনটাই চাঞ্চল্যকর অভিযোগ কংগ্রেসের। আর তাঁদের এই অভিযোগ ঘিরে তীব্র চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে।

আজ সোমবার বারাকপুর প্রশাসনিক ভবনে ভোটারকার্ড সংশোধনী প্রক্রিয়ার কাজ দেখতে আসেন কংগ্রেস সদস্যরা। সেখানেই এই অভিযোগ তোলেন তাঁরা। যে পদ্ধতিতে ভোটার কার্ড ভেরিফিকেশন করার কথা এই কাজে নিযুক্ত কর্মীদের, সেই পদ্ধতি মেনে তারা ভোটার কার্ড সংশোধন করার কাজ করছেন না বলে অভিযোগ তাঁদের। তবে ইন্টারনেটে সুনির্দিষ্ট লিংক খুললে দেখানো হচ্ছে ওই কার্ডের ভেরিফিকেশন করা হয়েছে। সেই কারণেই ভোটার কার্ডে সংশোধন প্রক্রিয়ায় এই গরমিলের প্রতিবাদ জানিয়ে জাতীয় কংগ্রেসের তরফে সোমবার মহকুমা শাসকের কাছে স্মারলিপি জমা দিতে যান জাতীয় কংগ্রেসের কর্মীরা ।

তবে সোমবার ব্যাক্তিগত কাজে মহকুমা শাসক ড: আবুল কালাম আজাদ ইসলাম তার দফতরে ছিলেন না। তারপর কংগ্রেস কর্মীরা এই স্মারকলিপি পেশ করেন বারাকপুর মহকুমায় দ্বায়িত্বপ্রাপ্ত নির্বাচনী আধিকারিককে। যাতে বিষয়টি নির্বাচন কমিশন গুরুত্ব দিয়ে দেখে,তার অনুরোধ করা হয়।

জাতীয় কংগ্রেসের পক্ষ থেকে বারাকপুর প্রশাসনিক ভবনে কংগ্রেসের এদিনের কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন প্রদেশ কংগ্রেস নেতা তথা নোয়াপাড়া শহর কংগ্রেসের সভাপতি অশোক ভট্টাচার্য সহ অন্যান্যরা । জেলা কংগ্রেসের নেতৃত্ব তাদের এদিনের স্মারকলিপির প্রতিলিপি রাজ্য নির্বাচন কমিশনকে পাঠিয়ে বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে বিবেচনা করার অনুরোধ জানানো হয়েছে ।