স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: বেলুড়ে মৃত দমকলকর্মীর পরিবারকে আর্থিক সাহায্যের ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেইসঙ্গে CESC’র বিরুদ্ধে তদন্তের নির্দেশ দিলেন তিনি।

বুধবার নবান্নের প্রশাসনিক বৈঠকে মৃত দমকলমন্ত্রী সুকান্ত সিংহা রায়ের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “শোক জানাবার ভাষা নেই ৷ অর্থ দিয়ে তো মানুষের প্রাণের বিকল্প হয় না৷ তবু বিপর্যয়ের কাজ করতে গিয়েই মৃত্যু৷ ১০ লক্ষ টাকা ও তাঁর পরিবারের একজনকে চাকরি দেবে রাজ্য সরকার ৷”

একইসঙ্গে দমকলকর্মীর মৃত্যুতে CESC-র ভূমিকা নিয়ে সরব হন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ বলেন, ভুল তথ্য দেওয়াও গাফিলতি৷ এটাও এক ধরনের অপরাধ৷ পুলিশকে এই ঘটনার উপযুক্ত তদন্ত করে দেখার নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী৷

বুধবার হাওড়ার বেলুড় এলাকায় ভাঙা গাছ সাফ করে বিদ্যুৎ ফেরাতে সেখানে হাজির হয়েছিল দমকলের সাতটি এবং সিইএসসির চারটি দল। বেলা সাড়ে ১২টা নাগাদ কাজ শুরু হয়। তার আগে দমকলবাহিনীর তরফে সিইএসসি কর্মীদের
বলা হয়, সেখানকার বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ করে দিতে। সিইএসসি কর্মীরা জানিয়ে দেন, বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধই রয়েছে। নিশ্চিন্তে কাজ করা যাবে। সে মতোই কাজ শুরু করেন দমকলকর্মী। কিন্তু কয়েক মুহূর্ত পরই বোঝা যায় সিইএসসির দেওয়া তথ্য সম্পূর্ণ ভুল ছিল। বিদ্যুৎস্পৃষ্ঠ হয়ে ২০ ফুট উপর থেকে নিচে ছিটকে পড়েন দমকলকর্মী সুকান্ত সিংহ রায়। হাওড়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা।

ঘটনায় সিইএসসির বিরুদ্ধে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন দমকলের ডিজি। তিনি জানান, বিদ্যুৎ সরবরাহকারী এই বেসরকারি সংস্থার গাফিলতিতেই একজনের প্রাণ গেল। ইতিমধ্যেই তাঁদের তরফে সিইএসসি কর্মীদের বিরুদ্ধে একটি এফআইআর করা হয়েছে।

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প