কলকাতা: আগামী ১১ ফেব্রুয়ারি মিনি আইপিএল নিলাম। তার আগে দেশের মাটিতে করোনা পরবর্তী প্রথম ঘরোয়া ক্রিকেট টুর্নামেন্টে নজর আইপিএলের আট ফ্র্যাঞ্চাইজির। সৈয়দ মুস্তাক আলি টি২০-তে ভালো পারফরম্যান্সের অর্থ আইপিএল ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলির নজরে থাকা। স্বাভাবিকভাবেই চলতি টুর্নামেন্টে নিজেদের প্রমাণে মরিয়া থাকবে ভিন্ন রাজ্যের ব্যাটসম্যানরা। ওডিশার বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচে অর্ধশতরান, এরপর বাংলার বিরুদ্ধে চোখধাঁধানো শতরানে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের র‍্যাডারে চলে এলেন বাংলা ওপেনার বিবেক সিং।

মঙ্গলবার ওপেনার বিবেক সিং’য়ের ৬৪ বলে ঝোড়ো শতরানে ভর করে ধোনির রাজ্যকে ১৬ রানে হারিয়েছে বাংলা। স্বাভাবিকভাবেই চলতি মুস্তাক আলি টি২০-র প্রথম শতরানকারী হিসেবে বিরাট কোহলি নেতৃত্বাধীন ফ্র্যাঞ্চাইজি দলের নজরে পড়লেন বিবেক। বিবেকের ইনিংস দেখার পর মঙ্গলবার আরসিবি’র এক ট্যালেন্ট স্কাউট জানিয়েছেন, ‘যেভাবে বিবেক ব্যাট করল তা সত্যিই প্রশংসনীয়। ভাগ্যিস ম্যাচগুলো টেলিভিশনে সম্প্রচার করা হচ্ছে তাই দেখার সুযোগ হল। এরপর ও আমাদের র‍্যাডারে চলে এল।

উল্লেখ্য, ঝাড়খন্ডের বিরুদ্ধে মঙ্গলবার ৬৪ বলে বিবেকের অপরাজিত ১০০ রানের ইনিংস সাজানী ছিল ১৩টি চার এবং ৩টি ছয়ে। ইশান কিষান নেতৃত্বাধীন ঝাড়খন্ডকে বাংলা ১৬ রানে হারায় মূলত বিবেকের ব্যাটিংয়ে ভর করেই। বল হাতে বাংলার জয়ে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা নেন ইশান পোড়েল।

১৫৬.২৫ স্ট্রাইক রেটে বিবেকের অপরাজিত সেঞ্চুরির দৌলতে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেটে ১৬১ রান তোলে বাংলা৷ রান তাড়া করতে নেমে শুরু থেকেই নিয়মিত উইকেট হারাতে থাকে ঝাড়খণ্ড। ইশানকে সামলাতে পারেননি ঝাড়খণ্ড ব্যাটসম্যানরা৷ অন্য বোলাররও দারুণ বোলিং করেন৷ ৩৪ রান দিয়ে ৩ উইকেট নিয়ে বাংলার জয়ে বড় ভূমিকা নেন ইশান৷ প্রথম ম্যাচে ওডিশার বিরুদ্ধে ২৬ রান দিয়ে ৪ উইকেট নিয়ে বাংলাকে জিতিয়েছিলেন তিনি। এদিন তাঁর গতির সামনে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৪৫ রান তোলে ঝাড়খণ্ড৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।