বেঙ্গালুরু: ফেব্রুয়ারিতে জার্মানির ফ্র্যাঙ্কফুর্টে বুন্দেসলিগা চেস লিগ খেলতে গিয়েছিলেন। মার্চে দেশে ফিরে আসার কথা থাকলেও পৃথিবীজুড়ে করোনা নামক অতিমারীর দাপটে লকডাউন এবং আন্তর্জাতিক উড়ান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা জারি হওয়ায় জার্মানিতে আটকে পড়া। তিনমাস হিটলারের দেশে আটকে থাকার পর অবশেষে শনিবার দেশে ফিরলেন দাবায় পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন বিশ্বনাথন আনন্দ।

ফ্র্যাঙ্কফুর্ট থেকে দিল্লি হয়ে শনিবার দুপুর ১টা ১৩ মিনিটে বেঙ্গালুরুর কেম্পেগৌড়া আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে আনন্দের বিশেষ এয়ার ইন্ডিয়ার বিমান (এআই-১২০)। আনন্দের দেশে ফেরার খবরটি পিটিআই’কে নিশ্চিত করেছেন প্রাক্তন বিশ্বচ্যাম্পিয়নের স্ত্রী। একইসঙ্গে আনন্দ সুস্থ আছেন বলেই জানিয়েছেন স্ত্রী অরুণা আনন্দ। দীর্ঘ সময় জার্মানিতে আটকে থাকার পর দেশে ফিরতে পারায় স্বভাবতই খুশি আনন্দ।

তবে ঘরে ফিরলেও এখনই পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের সঙ্গে যথেচ্ছ মেলামেশার সুযোগ পাবেন না চেন্নাইজাত প্রাক্তন বিশ্বচ্যাম্পিয়ন দাবাড়ু। কর্ণাটক সরকার নির্দেশিত গাইডলাইন মেনে বেঙ্গালুরুতে আপাতত ৭ দিন রাজ্য সরকারের কোয়ারেন্টাইন এবং এরপর কোভিড১৯ পরীক্ষার রিপোর্ট নেগেটিভ পাওয়া গেলে তাঁকে বাড়ি ফিরে ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টাইন প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ করতে হবে। কর্ণাটক স্বাস্থ্যমন্ত্রক সূত্রে এমনটাই জানানো হয়েছে। আনন্দের স্ত্রী অরুণা আনন্দ জানিয়েছেন, ‘দীর্ঘদিন বাদে আনন্দ দেশে ফিরে আসায় আমরা ভীষণই খুশি। বেঙ্গালুরুতে সমস্ত কোয়ারেন্টাইন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে তবেই চেন্নাই ফিরবেন তিনি।’

জার্মানি থেকে ভারতবর্ষের কেবল দিল্লি এবং বেঙ্গালুরু বিমানবন্দরেই বিমান অবতরণের অনুমতি রয়েছে। শুক্রবার রাতে ফ্র্যাঙ্কফুর্ট বিমানবন্দর থেকে এয়ার ইন্ডিয়া বিশেষ বিমান ধরেন আনন্দ। শনিবার বিকেলে দিল্লি হয়ে বেঙ্গালুরু পৌঁছন তিনি। ফ্র্যাঙ্কফুর্টেই একটি হোটেলে গোটা লকডাউন পিরিয়ডে আটকে ছিলেন পদ্ম বিভূষণ, পদ্মশ্রী সম্মানে সম্মানিত এই দাবাড়ু। করোনার জেরে বাতিল হওয়ার আগে অবধি রাশিয়ায় একটি প্রতিযোগীতায় অংশগ্রহণকারীদের জন্য অনলাইন ধারাভাষ্য প্রদান করছিলেন আনন্দ। ভিডিও কলের মাধ্যমে চেন্নাইয়ে পরিবারের সঙ্গে প্রতিনিয়ত যোগাযোগ রেখে চলছিলেন তিনি।

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV