বার্মিংহ্যাম: এজবাস্টনে ভারত-বাংলাদেশ ম্যাচ৷ বাইশ গজের বিশ্বযুদ্ধে দুই প্রতিবেশী দেশের লড়াই দেখতে মুখিয়ে ছিল সারা বিশ্বের বাঙালি ও ভারতীয় ক্রিকেট ফ্যানেরা৷ এজবাস্টনের গ্যালারিতে বিরাটদের উৎসাহ দিতে বাঁশি হাতে হাজির ছিলেন বছর সাতাশির চারুলতা প্যাটেল৷ ভারতীয় ব্যাটিংয়ের সময় ক্যামেরার লেন্সে হঠাৎই ফেমাস হয়ে ওঠেন তিনি৷ ম্যাচের পর এই বয়ষ্ক মহিলা ফ্যানের সঙ্গে ছবি তুললেন টিম ইন্ডিয়ার ক্যাপ্টেন ও ভাইস-ক্যাপ্টেন৷

বার্মিংহ্যামে বাংলাদেশকে হরিয়ে বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে পৌঁছেছে ভারত৷ ৮ ম্যাচ ১৩ পয়েন্ট নিয়ে অস্ট্রেলিয়ার পর দ্বিতীয় দল হিসেবে শেষ চারে জায়গা করে নেয় ‘মেন ইন ব্লু’৷ এজবাস্টনে বাংলাদেশকে ২৮ রান হারায় বিরাটবাহিনী৷ ভারতের ৩১৪ রান তাড়া করে ২৮৬ রানে গুটিয়ে যায় বাংলাদেশ৷ ম্যাচের পর গ্যালারিতে বয়ষ্ক ওই মহিলা ভারতীয় সমর্থকের সঙ্গে দেখা করেন বিরাট কোহলি ও রোহিত শর্মা৷ টিম ইন্ডিয়ার দুই তারকা ক্রিকেটারকে আদর করেন তিনি৷

সেই ছবি নিজের অফিসিয়ালস টুইটারে আপলোড করে বিরাট লেখেন, ‘সমস্ত ফ্যানেদের ভালোবাসা ও সমর্থনের জন্য ধন্যবাদ৷ বিশেষ করে চারুলতা প্যাটেলজিকে৷ ৮৭ বছর বয়সেও এতো প্যাশন ও ক্রিকেটঅন্ত প্রাণ এই মহিলা ফ্যানকে আমি প্রথমবার দেখলাম৷ এ থেকে প্রমাণিত বয়স কেবলমাত্র একটা সংখ্যা৷ প্যাশন কোনও কিছুর বাঁধ মানে না৷’

৮৭ বছরের ওই মহিলা ভারতীয় ব্যাটিংয়ের সময় বাঁশি বাজিয়ে গ্যালারি মাতিয়ে রেখেছিলেন৷ সেই সময় ক্যামেরার ফোকাস ওনার উপর পড়ায় সঙ্গে সঙ্গে চর্চা শুরু হয়ে যায় বয়ষ্ক ওই মহিলা ফ্যানকে নিয়ে ধারাভাষ্য থেকে সাধারণ সমর্থকরাও তাঁর প্যাশন দেখে অভিভূত হন৷ এর পরই সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোলড হন তিনি৷ ম্যাচের পর বিরাট ও রোহিতকে কাছে পেয়ে আপ্লুত চারুলতা জি৷ তিনি বলেন, ‘said, “This is MY team. They are like MY kids.”

এজবাস্টনে ইংল্যান্ডের পর বাংলাদেশের বিরুদ্ধেও সেঞ্চুরি করে নজির গড়েন রোহিত৷ চলতি বিশ্বকাপে চার-চারটি সেঞ্চুরির মালিক হন হিটম্যান৷ সেই সঙ্গে একই বিশ্বকাপে সর্বাধিক চারটি সেঞ্চুরি করে টপকে গেল প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কে৷ অর্থাৎ প্রথম ভারতীয় হিসেবে একই বিশ্বকাপে চারটি সেঞ্চুরির মালিক হলেন মু্ম্বইয়ের এই ডানহাতি৷ ২০০৩ বিশ্বকাপে তিনটি শতরান ছিল সৌরভের৷

মঙ্গলবার এজবাস্টনে মাইলস্টোন ছুঁলেন বিরাটও৷ এক ক্যালেন্ডার ইয়ারে ১০০০ রানের মাইলস্টোন টপকে যান ভারত অধিনায়ক৷ এদিন বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ২৭ বলে ২৬ রান করেন কোহলি৷ তবে ব্যক্তিগত ১০ করার সঙ্গে সঙ্গে চলতি বছরে ওয়ান ডে ক্রিকেটে ১০০০ রানের মাইলস্টোন ছুঁয়ে ফেলেন বিরাট৷