অ্যান্টিগা: সুদূর অ্যান্টিগাতেই প্রয়াত দেশের প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলিকে শ্রদ্ধা জানাল ভারতীয় ক্রিকেট দল। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে চলতি প্রথম টেস্টের তৃতীয় দিনের খেলা শুরুর আগেই ক্যারিবিয়ান দ্বীপপুঞ্জে ভারতীয় দলের কাছে ভেসে আসে অরুণ জেটলির প্রয়াত হওয়ার দুঃসংবাদ। এরপরই প্রাক্তন অর্থমন্ত্রীকে শ্রদ্ধা জানিয়ে তৃতীয়দিন স্যার ভিভিয়ান রিচার্ডস স্টেডিয়ামে কালো আর্মব্যান্ড পরে মাঠে নামার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয় ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্টের পক্ষ থেকে।

ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের পক্ষ থেকে জানানো হয়, ‘অরুণ জেটলির প্রয়াণে শোকাহত ভারতীয় দল তাঁকে শ্রদ্ধা জানিয়ে কালো আর্মব্যান্ড পরে মাঠে নামবে।’ বোর্ডের গৃহীত সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বিরাট কোহলি নেতৃত্বাধীন ভারতীয় দলের প্রত্যেক সদস্য এদিন কালো আর্মব্যান্ড পরে মাঠে নামে ফিল্ডিং করতে। মাঠে নামার আগে প্রাক্তন অর্থমন্ত্রীকে শ্রদ্ধা জানিয়ে একটি টুইটও করেন ভারত অধিনায়ক। উল্লেখ্য, ২০০৬ কোহলির বাবার মৃত্যুর সময় বাসভবনে গিয়ে বর্তমান ভারত অধিনায়ককে সান্ত্বনা জানিয়েছিলেন অরুণ জেটলি।

টুইটারে এদিন সেই ঘটনা উল্লেখ করেই কোহলি লেখেন, ‘শ্রী অরুণ জেটলি জি’র মৃত্যুর খবর আমাকে নাড়িয়ে দিয়েছে। আমি দুঃখিত। অসম্ভব ভালো একজন মানুষ ছিলেন, অন্যের উপকারে তাঁর জুড়ি মেলা ছিল ভার। আমার বাবা মারা যাওয়ার পর বাড়িতে এসে শোকজ্ঞাপন করেছিলেন। উনার আত্মার শান্তি কামনা করি।’

উল্লেখ্য, ২০০০ প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটল বিহার শাসনকালে ক্যাবিনেট মন্ত্রী হিসেবে আত্মপ্রকাশ ঘটে অরুণ জেটলির। ২০০৯ রাজ্যসভার বিরোধী দলনেতাও ছিলেন তিনি। এরপর গত পাঁচ বছরের মোদী সরকারের মন্ত্রিসভায় তিনি ছিলেন অর্থমন্ত্রী। শুধু অর্থমন্ত্রীই নন, কিছুদিনের জন্য প্রতিরক্ষামন্ত্রকের দায়িত্বও সামলেছিলেন তিনি। কিন্তু শারীরীক অসুস্থতার কারণে ২০১৯ লোকসভা নির্বাচন থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছিলেন তিনি।

চলতি মাসের ৯ তারিখ গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় তাঁকে এইমস হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তাঁর শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় পরবর্তীতে তাঁকে ক্রিটিক্যাল কেয়ার ইউনিটে রাখা হয়েছিল। লাইফ সাপোর্টে ছিলেন তিনি। গত কয়েকদিনে রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী থেকে শুরু করে বিজেপির সব শীর্ষস্তরের নেতাই তাঁকে দেখতে ছুটেছিলেন এইমসে।