ওয়েলিংটন: টানা দু’ম্যাচে সুপার ওভার৷ আর দু’টি ম্যাচেই জয়ী ভারত৷ প্রথমবার সুপার ওভারে মাঠে নেমেই জয়ী বিরাটবিগ্রেড৷ সেডেন পার্কের পর ওয়েস্টপ্যাক৷ দু’টি ম্যাচেই ধরাশায়ী নিউজিল্যান্ড৷ এ নিয়ে গত সাত মাসে চারবার সুপার ওভারে হারল কিউয়িবাহিনী৷

সুপার ওভারে কিউয়িরা বারবার হারলেও বিরাট টানা দু’মাচেই সুপার ওভার জিতে নতুন কিছু শিখলেন৷ এদিন ম্যাচের পর জানান, ‘আমরা এর আগে সুপার ওভার খেলিনি। এখানে দু’টো ম্যাচ খেললাম। দু’টো ম্যাচেই আমরা জিতলাম। এই জয় আমাদের দলের চরিত্রটাই তুলে ধরছে।’

এদিন সুপার ওভারে নিউজিল্যান্ড তুলেছিল ১৩ রান। সেই রান তাড়া করতে নেমে প্রথম দু’ বলে ছক্কা-চার মেরে ১০ রান নেন রাহুল। তৃতীয় বলে আউট হয়ে গেলেও। বাকি কাজটা করেন কোহালি। ম্যাচের শেষে ভারত অধিনায়ক বলেন, ‘রাহুলের দু’টো শট দারুণ ছিল। এই জয় থেকে আমরা নতুন শিক্ষা পেলাম। প্রতিপক্ষ যখন ভালো খেললেও ম্যাচ শেষ না-হওয়া পর্যন্ত মাথা ঠান্ডা রাখতে হয়।’

এবার অবশ্য রোহিত শর্মাকে ছাড়াই সুপার ওভার জিতল ভারত৷ আগের ম্যাচের নায়র রোহিতকে এদিন বিশ্রাম দেয় ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্ট৷ সুতরাং সুপার ওভারে এদিন লোকেশ রাহুলের সঙ্গী হন ক্যাপ্টেন কোহলি৷ টিম সাউদির প্রথম দুই বলে ১০ রান তুলে ফেলে ভারত৷ প্রথম বলেই ছক্কা ও দ্বিতীয় বলে বাউন্ডারি হাঁকান রাহুল৷ তৃতীয় ডেলিভারি শর্ট করেন সাউদি৷ তা পুল শট মারতে গিয়ে মিড-উইকেটে ধরা পড়েন রাহুল৷

রাহুল আউট হওয়ার পর ক্রিজে আসেন সঞ্জু স্যামসন৷ কিন্তু ব্যাট করার সুযোগ দেননি ক্যাপ্টেন কোহলি৷ চতুর্থ ডেলিভারি মিড-অনে ঠেলে দিয়ে ২ রান নেন বিরাট৷ অর্থৎ শেষ ২ বলে ভারতের জয়ের জন্য দরকার ছিল ২ রান৷ কিন্তু পঞ্চম ডেলিভারি মিউ-উইকেটের উপর দিয়ে বাউন্ডারিতে পাঠিয়ে ভারতকে দেন ক্যাপ্টেন৷ সেই সঙ্গে ম্যাচ জিতে নেয় টিম ইন্ডিয়া৷ ম্যাচের সেরা শার্দুল ঠাকুর৷

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV