ফ্লোরিডা: বিশ্বকাপের ব্যর্থতা ভুলে ফেরে মাঠে নামছে ভারত৷ তবে ক্যারিবিয়ানদের বিরুদ্ধে মাঠে নামার আগেই বিরাট-রোহিত বিতর্ক তুঙ্গে৷ ক্যাপ্টেন ও ভাইস-ক্যাপ্টেনের মধ্যে সম্পর্কের চোরাস্রোত সোশাল মিডিয়ার বিরাট-রোহিতের টুইটে এখন ‘তু তু ম্যাঁয় ম্যাঁয়’৷

শনিবার ফ্লোরিডার লডারহিলে টি-২০ ম্যাচ দিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর শুরু করছে কোহলি অ্যান্ড কোং৷ মাঠের বাইরে একে অপরকে টেক্কা দেওয়ার পাশাপাশি বাইশ গজেও বিরাট-রোহিতের সামনে এক অপরকে ছাপিয়ে যাওয়ার হাতছানি৷ আন্তর্জাতিক টি-২০ ক্রিকেটে ২০টি করে হাফ-সেঞ্চুরি রয়েছে বিরাট কোহলি ও রোহিত শর্মার৷ বিশ্বের মধ্যে শীর্ষে রয়েছেন টিম ইন্ডিয়ার ক্যাপ্টেন ও ভাইস-ক্যাপ্টেন৷ ১৬টি হাফ-সেঞ্চুরি করে বিরাট ও রোহিতের পিছনে রয়েছেন কিউয়ি ওপেনার মার্টিন গাপ্তিল৷

আন্তর্জাতিক টি-২০ ক্রিকেটে বিরাটের ২০টি হাফ-সেঞ্চুরি এসেছেন ৬২টি ইনিংসে৷ আর রোহিত অবশ্য সমসংখ্যক হাফ-সেঞ্চুরি করেছেন ৮৬টি ইনিংসে৷ ভারতের মধ্যে এই দু’জনের পরে রয়েছেন শিখর ধাওয়ান৷ ৪৯টি ইনিংসে ৯টি হাফ-সেঞ্চুরি করেছেন টিম ইন্ডিয়ার বাঁ-হাতি ওপেনার৷ তবে মাঠের বাইরে ‘তু তু ম্যাঁয় ম্যাঁয়’-এর পর বাইশ গজেও বিরাট ও রোহিতের সামনে একে অপরকে টপকে যাওয়ার লড়াই৷

বিশ্বকাপের পর থেকেই টিম ইন্ডিয়ার ক্যাপ্টেন ও ভাইস-ক্যাপ্টেনের মধ্যে বিরোধ দেখা গিয়েছে৷ সেমিফাইনালে হেরে বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে যাওয়ার পর ফাইনাল পর্যন্ত বিরাটরা লন্ডনে থেকে গেলেও দু’দিন আগেই দেশের ফিরেছিলেন রোহিত৷ তখন থেকেই বিরাট-রোহিতের সম্পর্কে তিক্ততা প্রকাশ্যে আসে৷ কিন্তু ক্যারিবিয়ান সফরের উদ্দেশ্যে দেশ ছাড়ার আগে সাংবাদিক বৈঠকে রোহিতের সঙ্গে তাঁর তিক্ততার কথা অস্বীকার করেন ক্যাপ্টেন কোহলি৷

কিন্তু বৃহস্পতিবার সোশাল মিডিয়ায় রোহিতের একটি পোস্ট ক্যাপ্টেন ও ভাইস-ক্যাপ্টেনের মধ্যে সম্পর্কের ফাটল চওড়া হল৷ বিশ্বকাপে ড্রেসিংরুম থেকে মাঠে নামার ছবি পোস্ট করে রোহিত লেখেন, ‘আমি শুধু দলের হয়ে খেলি না, আমি খেলতে নামি দেশের হয়ে৷’ শুক্রবার পালটা দেন বিরাটও৷ সোশাল মিডিয়া দলের একটি ছবি পোস্ট করেন ক্যাপ্টেন কোহলি৷ যে ছবিতে ছিলেন না ভাইস-ক্যাপ্টেন রোহিত৷ এই পোস্টের জন্য অবশ্য ‘হিটম্যান’ ফ্যানেদের কুনজরে পড়েন কোহলি৷