মুম্বই: বলিউডের সেলেব্রিটিদের সরিয়ে প্রথমবার এক নম্বরে উঠে এলেন বিরাট কোহলি৷ এক ধাক্কায় বলি তারকাদের ছিটকে দিলেন ভারত অধিনায়ক। ফোর্বসের বিচারে ১০০ জন ভারতীয় সেলেব্রিটিদের মধ্যে শীর্ষে উঠে এলেন কোহলি। আট বছরের প্রথমবার কোনও ক্রীড়াবিদ এই জায়গায় পৌঁছলেন।

এতদিন শীর্ষ স্থান দখলে রাখতেন অভিনেতারাই। কিন্তু কোহলি সেই পাশা পালটে দিলেন৷ ১ অক্টোবর, ২০১৮ থেকে ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ পর্যন্ত কোহলির আয় ২৫২.৭২ কোটি। এর ফলেই শীর্ষে পৌঁছে গেলেন কোহলি। ফোর্বসের দেওয়া তথ্যের বিচারে দ্বিতীয় স্থানেই রয়েছেন অভিনেতা অক্ষয় কুমার৷ এই সময়ে ব্যবধানে ‘মি: খিলাড়ি’র আয় ২৯৩.২৫ কোটি। তিন নম্বরে রয়েছেন সলমন খান। ২০১৬ থেকে সেরা তিন রয়েছেন সলমন।

তবে অক্ষয় কুমারের থেকে কম আয় করা সত্ত্বেও কেন এক নম্বরে বিরাট, তার ব্যাখ্যা দিয়েছে ফোর্বস৷ তারা জানিয়েছে, ‘সেলেব্রিটি র‍্যাংক তৈরি হয় তাঁর রোজগারের পাশাপাশি তাঁদের প্রিন্ট ও সোশ্যাল মিডিয়া সার্চ দিয়ে। কোনও কোনও সেলেব্রিটি চাহিদার দিক থেকে অনেক উচ্চতায় থাকেন টাকার নিরিখে এগিয়ে থাকাদের থেকে। আবার কারও আয় বেশি হলেও তাঁর চাহিদা তেমন থাকে না।’

ফোর্বস ইন্ডিয়ার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, কোহলি টাকা রোজগার করেন ম্যাচ-ফি, বোর্ডের সঙ্গে বার্ষিক চুক্তি, ব্র্যান্ড এনডোর্সমেন্ট এবং ইনস্টাগ্রাম স্পনসরশিপ পোস্ট থেকে। এর আগে প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক তথা দু’বারের বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি এবং মাস্টার ব্লাস্টার সচিন তেন্ডুলকর ফোর্বসের ভারতীয় সেলেব্রিটির তালিকায় প্রথম দশে পৌঁছেছিলাম। ধোনি পাঁচ এবং সচিন ন’ নম্বরে জায়গা করে নিয়েছিলেন। ফোর্বসের তথ্য অনুযায়ী অবসরের বছরেও বাড়তি পয়েন্ট পেয়ে সেরা দশে পৌঁছেছিলেন সচিন।

বিরাট শীর্ষে এবং তাঁর ডেপুটি রোহিত শর্মা অল্পের জন্য প্রথম দশে ঢুকতে পারলেন না৷ ২৩ ধাপ উঠে ১১ নম্বরে রয়েছেন। পুরুষদের ক্রিকেট দল থেকে এই তালিকায় রয়েছেন ঋষভ পন্থ, হার্দিক পান্ডিয়া, জসপ্রীত বুমরাহ, লোকেশ রাহুল, শিখর ধাওয়ান, রবীন্দ্র জাডেজা ও কুলদীপ যাদব। মহিলা ক্রিকেটার মিতালি রাজ, স্মৃতি মন্ধনা ও হরমনপ্রীত কাউর জায়গা করে নিয়েছেন সেরা দশে।

এছাড়া অনান্য ক্রীড়াবিদদের মধ্যে রয়েছেন ব্যাডমিন্টন তারকা পিভি সিন্ধু ও সাইনা নেহওয়াল, কুস্তিগীর বজরং পুনিয়া, বক্সার মেরি কম এবং টেনিস তারকা রোহন বোপন্না, ফুটবলার সুনীল ছেত্রী ও গলফার অনির্বাণ লাহিড়ি।