মিয়ামি: বিশ্বকাপের পর ফের বাইশ গজে ফিরছে টিম ইন্ডিয়া৷ ক্যারিবিয়ান সফর দিয়ে শুরু হচ্ছে বিরাটদের বিশ্বকাপ পরবর্তী অধ্যায়৷ তবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের প্রথম দু’টি ম্যাচে মার্কিন মুলুকে খেলবে ভারত৷ ফ্লোরিডায় হবে তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজের প্রথম দু’টি ম্যাচ৷ তবে মার্কিন মুলুকে ব্যাট হাতে নামার আগে স্ত্রী অনুষ্কার সঙ্গে মিয়ামিতে খোশমেজাজে দেখা গেল ভারত অধিনায়ককে৷

টি-২০ সিরিজের প্রথম দু’টি ম্যাচ হবে ফ্লোরিডার লডারহিলে৷ তার পরই ক্যারিবিয়ান দ্বীপপুঞ্জে উড়ে যাবে বিরাট অ্যান্ড কোং৷ টি-২০ সিরিজ ছাড়াও তিন ম্যাচের ওয়ান ডে এবং দুই টেস্টের সিরিজ খেলবে ভারত৷ কিন্তু মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকেই বিরাটের সফরসঙ্গী বলিউড কুইন অনুষ্কা শর্মা৷ ফ্লোরিডায় মাঠে নামার আগে অনুষ্কার সঙ্গে মিয়ামির রেস্টুরেন্টে দেখা গেল কোহলিকে৷ মার্কিন মুলুকে ফ্যানদের সঙ্গে ছবি তুলতে দেখা যায় ভারতীয় ক্রিকেটের ফার্স্ট ম্যান ও ফার্স্ট লেডিকে৷ সেলিব্রিটি কাপলের সঙ্গে তাদের ছবি সোশাল মিডিয়া শেয়ার করেন ফ্যানেরা৷

বিরাটের সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধার পর থেকে প্রায় প্রতিটি সফরের ভারত অধিনায়কের সফরসঙ্গী হয়েছেন অনুষ্কা৷ ইংল্যান্ড ও ওয়েলসের মাটিতে সদ্যসমাপ্ত ২০১৯ বিশ্বকাপেও বোর্ডর নিয়ম তোয়াক্কা না-করেই ১৫ দিনের বেশি বিরাটের সফরসঙ্গী ছিলেন অনুষ্কা৷ বিশ্বকাপ চলাকালীনও প্রায়শই দেখা গিয়েছে বিরুষ্কাকে৷ বিশ্বকাপে সেমিফাইনালেই শেষ হয়ে যায় বিরাটদের দৌড়৷ শেষ চারের লড়াইয়ে নিউজিল্যান্ডের কাছে হেরে বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নেয় টিম ইন্ডিয়া৷

বিশ্বকাপে বিরাটের ব্যাটে আহামরি পারফরম্যান্স ছিল না৷ ৯টি ইনিংসে বিরাটদের ব্যাট থেকে আসেনি কোনও সেঞ্চুরি৷ সেমিফাইনালের মতো মেগা ম্যাচেও মাত্র ১ রান করে ড্রেসিংরুমে ফিরেন ভারত অধিনায়ক৷ টুর্নামেন্টে মোট ৪৪৩ রান করে একাদশতম স্থানে ছিলেন কোহলি৷ তবে পাঁচটি সেঞ্চুরি করে বিশ্বরেকর্ডের পাশাপাশি টুর্নামেন্টে সর্বাধিক ৬৪৮ রান এসেছিল রোহিতের ব্যাট থেকে৷

বিশ্বকাপে পারফরম্যান্সে বিরাটকে ছাপিয়ে যান তাঁর ডেপুটি রোহিত৷ বিশ্বকাপের পরই সীমিত ওভারের ফর্ম্যাটে বিরাটের পরিবর্তে রোহিতের হাতে নেতৃত্বের ব্যাটন তুলে দেওয়া নিয়ে প্রশ্ন উঠেছিল৷ কিন্তু নির্বাচকরা বিরাটকেই ক্যারিবিয়ান সফরে তিন ফর্ম্যাটেই নেতা হিসেবে বেছে নেন৷ তবে বিশ্বকাপে ড্রেসিংরুমে বিরাট-রোহিত দ্বন্দ্বকে গুজব বলে উড়িয়ে দেন ক্যাপ্টেন কোহলি৷ ক্যারিবিয়ান সফরের উদ্দেশ্যে দেশ ছাড়ার আগে সাংবাদিক বৈঠকে কোহলি বলেন, ‘আমার মতে, এটা হাস্যকর৷ কিছু বিষয় ও ফ্যানটাসির মধ্যে থেকে এই ধরনের লেখাগুলো ভিত্তিহীন৷ কিছু মিথ্যাকে তুলে ধরার চেষ্টা৷ ড্রেসিংরুমে ঢুকলেই আপনার বুঝতে পারতেন সেখানে কী ধরনের পরিবেশ ছিল৷ ড্রেসিংরুমে ভালো পরিবেশ না-হলে এই পারফরম্যান্স করা সম্ভব ছিল না৷’

পাশাপাশি রোহিতের প্রশংসা করে বিরাট বলেন, ‘আমি যদি কোনও ব্যক্তিকে পছন্দ না-করি তবে, আপনি তা আমার মুখের উপর দেখতে পাবেন। আমি সবসময় রোহিতের প্রশংসা করেছি। আমাদের মধ্যে কোন সমস্যা নেই। কারা এতে উপকৃত হচ্ছে তা জানি না। আমরা ভারত ক্রিকেটকে শীর্ষে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছি৷ পরস্পরের মধ্যে বোঝাপড়া না-থাকলে আপনি এই জাতীয় আবেগ নিয়ে খেলতে পারবেন না৷’