স্টাফ রিপোর্টার, বহরমপুর: একশো দিনের কাজের ফর্ম জমা দেওয়া নিয়েও ‘আমরা-ওরা’র রাজনীতি৷ পঞ্চায়েতের বিরুদ্ধে পক্ষপাতমূলক আচরণের অভিযোগ গ্রামবাসীদের৷ সোমবার এই অভিযোগকে কেন্দ্র করে ধুন্ধুমার বাধাল গ্রামবাসীরা৷ ফর্ম জমা দিতে না পারার ক্ষোভে তৃণমূল পরিচালিত গ্রাম পঞ্চায়েতের অফিসে তালা ঝুলিয়ে দেয় তারা৷ একই সঙ্গে অবস্থান বিক্ষোভে বসে পড়েন গ্রামবাসীরা৷ পরে হরিহরপাড়া থানার পুলিশ এসে অবস্থান বিক্ষোভ তুলে দেয়৷ স্বাভাবিক হয় পঞ্চায়েতের কাজকর্ম৷

মুর্শিদাবাদের হরিহরপাড়া ব্লকের রুকুনপুর গ্রামের ঘটনা৷ সেখানে ১০০ দিনের কাজের প্রকল্পের জন্য ৪ এর ক ফর্ম তোলা ও জমা দেওয়ার কাজ চলছে৷ কিন্তু গ্রামবাসীদের একাংশের অভিযোগ, শুধু মাত্র তৃণমূলের সমর্থক গ্রামবাসীদের ফর্ম জমা নেওয়া হলেও বিরোধী দলের সমর্থকদের ফর্ম জমা নেওয়া হচ্ছিল না৷ সোমবার দুপুরে দল বেধে গ্রামবাসীরা পঞ্চায়েতের অফিসে আসে৷ পঞ্চায়েত কর্মীদের ঘরে আটকে রেখে গেটে তালা ঝুলিয়ে দেয়৷ পরে অফিসের বাইরে অবস্থান বিক্ষোভে বসে পড়ে সকলে। প্রায় দুই ঘণ্টা ধরে চলে বিক্ষোভ৷

খবর পেয়ে হরিহরপাড়া থানার পুলিশ পঞ্চায়েত অফিস আসে৷ গ্রামবাসীদের সঙ্গে কথা বলে বিক্ষোভ তুলে দেয়৷ পরে অফিসের তালাও খুলে দেওয়া হয়। এদিকে পঞ্চায়েতে বিরুদ্ধে যে পক্ষপাতমূলক আচরণের অভিযোগ উঠেছে তা সম্পূর্ণ অস্বীকার করেন পঞ্চায়েত প্রধান শুভঙ্কর দাস। তিনি বলেন, ‘‘আমি মিটিংয়ের কাজে বাইরে ছিলাম৷ পঞ্চায়েত কর্মীদের কাছে ঘটনার কথা শুনেছি। গ্রামবাসীরা যে অভিযোগ করেছে তা সত্য নয়৷ কোনও গ্রামবাসী ফর্ম জমায় দিতে আসেনি। কেউ ফর্ম জমা দিতে আসলে তা নেওয়া হবে।’’