স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: রাজ্য সরকার ভোটের কাজে ব্যবহার করতে পারবে না ভিলেজ পুলিশ ভলেন্টিয়ারসকে৷ আগেই এবারের নির্বাচন থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে সিভিক ভলান্টিয়ারদের৷ কার্যত কেন্দ্রীয় বাহিনী সশস্ত্র ও সশস্ত্র রাজ্য পুলিশ দিয়েই ভোট করাতে চাইছে নির্বাচন কমিশন৷

ভিলেজ পুলিশ ভলেন্টিয়ারস ফোর্সের কর্মী বাপ্পা রায় জানান, গত পঞ্চায়েত ভোটের সময় বুথে বুথে তারা সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করেছেন৷ তা সত্বেও ১৭তম লোকসভা নির্বাচনে তাদেরকে ভোটের ডিউটির বাইরে রাখা হল৷ প্রশাসন থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে চুক্তি ভিত্তিক কোনও ফোর্স বুথে থাকবে না৷ তবে রাজ্য পুলিশের সঙ্গে থেকে তারা ভোটের আন্যান্য কাজ করছেন৷ এছাড়া ভোটের কাজের বাইরে রাজ্য পুলিশের সঙ্গে আর টি ডিউটি অর্থাৎ মোবাইল ভ্যান পেট্রোলিং,নাকা চেকিং,কোর্টের সমন ও নোটিস প্রেরণ করা,আসামী স্কট করে থাকেন৷

পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন থানায় কর্মরত রয়েছে ভিলেজ পুলিশ ভলেন্টিয়ারস ফোর্স৷ প্রত্যেক গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকা থেকে এদের নিয়োগ করা হয়েছে৷ ২০১২ সালে পুলিশ আইনের মাধ্যমে প্রায় সাড়ে তিন হাজার ভলেন্টিয়ারস নিয়োগ করা হয়৷ প্রত্যেকের দৈনিক পারিশ্রমিক বা বেতন ৩১০ টাকা৷ সিভিক ভলেন্টিয়ারসদের বেতন বাড়ানো হলেও ভিলেজ পুলিশ ভলেন্টিয়ারসদের বেতন বাড়ানো হয়নি৷ চার বছর ধরে তারা একই বেতনে কাজ করে যাচ্ছে৷ মূল্যবৃদ্ধির বাজারে এই বেতনে সংসার চালাতে হিমসিম খাচ্ছেন এই পুলিশরা৷

এর আগে জাতীয় নির্বাচন কমিশন তরফে জানান হয়েছে এবারের লোকসভা ভোটে সিভিক ভলান্টিয়াররা ভোটের ডিউটি থেকে বাদ৷ এবার প্রশাসন থেকে জানিয়ে দেওয়া হল ভিলেজ পুলিশ ভলেন্টিয়ারস ফোর্সও থাকতে পারবে না বুথে৷ শুধু মাত্র রাজ্যের সশস্ত্র পুলিশই নির্বাচন কমিশনের নির্দেশ অনুযায়ী নির্দিষ্ট বুথে থাকতে পারবে৷ যেহেতু ভোট চলাকালীন রাজ্যের সমস্ত পুলিশ প্রশাসনই নির্বাচন কমিশনের আওতায় থাকে৷