ছবি- প্রতীকী

লখনউ: লখনউয়ের একটি গ্রামের একটি ঘটনায় ফের উঠে এল সমাজের অন্ধকার দিকটি৷ গোপীগঞ্জ এলাকার একটি গ্রামে এক নাবালিকার সঙ্গে যা হল তা জেনে শিউরে উঠবেন আপনিও৷ ওই কিশোরীর গ্রামেরই এক ব্যক্তি ধর্ষণ করল তাকে৷ ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়, যদিও ততক্ষণে ফেরার হয়ে যায় সে৷

আরও পড়ুন: সালিশি সভায় গর্ভবতী মহিলাকে গণধর্ষণের নিদান, মাথার চুল কেটে ‘শাস্তি’

ঠিক কি ঘটেছিল?
পুলিশের পক্ষ থেকে সুনীল দা দুবে জানিয়েছেন, সোমবার সন্ধ্যাবেলায় ওই কিশোরী বাড়ি থেকে একা বের হয়৷ অনেকটা সময় চলে যাওয়ার পরও যখন সে ফেরেনি, তখন তাকে খুঁজতে শুরু করে তার পরিবারের লোকজন৷ অভিযুক্ত কমলেশ বিন্দও গ্রামের অন্যান্যদের সঙ্গে ওই কিশোরীকে খুঁজতে বের হয়৷ কিন্তু হই-হট্টগোল বাড়ছে দেখে একসময় সে পালিয়ে যায়৷ এতে সকলের সন্দেহ হলে গ্রামের বাসিন্দারা কমলেশের বাড়িতে তল্লাশি শুরু করে৷ সে সময়ই কমলেশের বাড়ির মধ্যে থেকে ওই কিশোরীকে পাওয়া যায়৷

আরও পড়ুন: বসিরহাট: কাঠগোলায় টেনে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ শিশুকে

জানা যায়, নির্যাতিতা থানায় তার বয়ান দিয়ে জানায় তাকে ধর্ষণ করেছে কমলেশ৷ পুলিশ মামলা দায়ের করে এবং কিশোরীকে মেডিকেল টেস্টের জন্য পাঠায়৷ পাশাপাশি অভিযুক্তের খোঁজে নেমে পড়েছে পুলিশ৷

আরও পড়ুন: ভাইঝিকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার জ্যাঠা

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প