প্রতীতি ঘোষ, বারাকপুর: রাজ্য সরকারের আয়ু আর মাত্র তিন মাস৷ তারপর তৃণমূল কংগ্রেসের অধিকাংশ বিধায়ক দল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেবেন। দিদির সরকার পড়ে যাবে। ফের সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে দেশের প্রধানমন্ত্রী হবেন নরেন্দ্র মোদী৷ এমনটাই দাবি করলেন কেন্দ্রীয় বিজেপি নেতা কৈলাশ বিজয়বর্গী৷

উত্তর ২৪ পরগণার ভাটপাড়ায় পবন সিংয়ের সমর্থনে সভা করতে আসেন কেন্দ্রীয় বিজেপি নেতা কৈলাশ বিজয়বর্গী। এদিন ভাটপাড়ার অ্যালায়েন্স জুটমিল গেটের সামনে বারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী অর্জুন সিংকে সঙ্গে নিয়ে পবন সিংয়ের সমর্থনে প্রচার সভা করেন কৈলাশ। প্রচার সভার শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে মুখ্যমন্ত্রীর টাকা পাচার প্রসঙ্গের কড়া ভাষায় সমালোচনা করেন।

মুখ্যমন্ত্রী রাজনৈতিক প্রচার সভায় গিয়ে সম্প্রতি মন্তব্য করেন, প্রধানমন্ত্রী সহ অন্যান্য মন্ত্রীদের হেলিকপ্টারে করে টাকা পাচার হচ্ছে। সেই প্রশ্নের উত্তরে কৈলাশ বিজয়বর্গী বলেন, ‘‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বাংলার ভোটারদের অপমান করেছেন। যখন সিপিএমকে সরিয়ে গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে তৃণমূল ক্ষমতায় এসেছিল তখন কি উনি ভোট টাকা দিয়ে কিনেছিলেন? বাংলার ভোটাররা সচেতন ভোটার। তারা দিদির সরকারের অধীনে বিরক্ত হয়ে উঠেছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘‘তৃণমূল কংগ্রেসের সরকারের থেকে বাংলার মানুষ পরিত্রাণ চাইছে। তাই বাংলার মানুষ বিজেপিকে ভোট দিয়ে গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে ক্ষমতায় আনবে। এর সঙ্গে ভোটারদের টাকা দেওয়ার প্রশ্নই ওঠে না। দিদি বাংলার নাগরিকদের অপমান করেছেন।’’