স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: রাজনৈতিক সংঘর্ষে ভেঙেছে বিদ্যাসাগরের মূর্তি৷ প্রতিবাদ গর্জে উঠেছে সমাজের নানা মহল থেকে৷ এবার প্রতিবাদে বামেরাও৷ আজ পথে নেমে মণিষীর মূর্তি ভাঙার বিরুদ্ধে সরব হবে বামফ্রন্ট৷

ফ্রন্টের রাজ্য নেতারাই শুধু নয়, এই প্রতিবাদ কর্মসূচিতে হাজির থাকবেন কেন্দ্রীয় নেতৃত্বও৷ ফ্রন্টের তরফে এমনটাই জানানো হয়েছে৷ বুধবার বেলা ১১টায় কলেজ স্কোয়ায়্যারে জমায়েতের ডাক দেওয়া হয়েছে৷ সেখান থেকেই উত্তর কলকাতার হেদুয়া পর্যন্ত হবে প্রতিবাদ মিছিল৷ উপস্থিত থাকবেন ফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসু, সিপিএমের সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি, দলের প্রাক্তন সম্পাদক প্রকাশ কারাত, রাজ্যসভার প্রাক্তন সাংসদ বৃন্দা কারাতরা৷

আরও পড়ুন: ভাঙল বিদ্যাসাগরের মূর্তি, সরব বাংলার বিশিষ্টজনেরা

ত্রিপুরাতে পালাবদলের বদলের পর ভাঙা হয়েছিল লেনিন মূর্তি৷ আলোড়ন পড়েছিল দেশজুড়ে৷ সার্বিক প্রতিবাদ হয়েছিল৷ এবার বাংলায় ভাঙা হল বিদ্যাসাগরের মূর্তি৷ উভয় ক্ষেত্রেই অভিযোগের নিশানায় গেরুয়া শিবির৷ আঘাত পেয়েছে বাঙালি আবেগ৷ অন্যদিকে, জাতীয় স্তরে কৃষক আন্দলোন থেকে এরাজ্যের বুকে নানা ইস্যুতে প্রতিবাদ কর্মসূচিতে সম্প্রতি ভালোই ভিড় নজরে এসেছে৷ তাই ভোট মরসুমে আবেগকে উসকে দিতেই প্রতিবাদ কর্মসূচির বামেদের প্রতিবাদ কর্মসূচির ডাক বলে মনে করা হচ্ছে৷

আরও পড়ুন: হিংসার জবাব তৃণমূল পাবে ইভিএমে: অমিত শাহ

মঙ্গলবার ছিল বিজেপি সভাপতি অমিত শাহের রোড শো৷ ধর্মতলা থেকে বিধান সরণিতে বিবেকানন্দের বাড়ি পর্যন্ত সেই শো হয়৷ কলেজ স্ট্রিটে অমিত শাহের লরি পৌঁছাতেই শুরু হয় উত্তেজনা৷ কতলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলেজ স্ট্রিট ক্যাম্পাসের সামনে থেকে গেরুয়া শিবিরের প্রধানকে কালো পতাকা দেখানো হয় টিএমসিপির তরফে৷ যা ঘিরে উভয় শিবিরের মধ্যে গন্ডোগোল শুরু হয়৷

পরে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে বিধান সরণিতে বিদ্যাসাগর কলেজ সংলগ্ন এলাকায়৷ বিজেপি ও টিএমসিপি, উভয় তরফেরই অভিযোগ, তাদের লক্ষ্য করে অন্যপক্ষ প্রথমে আক্রমণ করে৷ বাইকে আগ্নি সংযোগ থেকে ইঁট বৃষ্টি, মঙ্গল সন্ধ্যায় রণক্ষেত্রের আকার নেয় বিধান সরণির ওই অংশ৷ সংঘর্ষে আহত হয় দু’তরফের বেশ কয়েকজন৷ সংঘর্ষের মাঝেই ভেঙে দেওয়া হয় কলেজের মধ্যে থাকা বিদ্যাসাগরের মূর্তিটি৷ ভাঙচুর হয় বিদ্যাসাগর কলেজের সম্পত্তিও৷ পদ্ম শিবিরকে তোপ দাগেন মুখ্যমন্ত্রী৷ সমালোচনার ঝড় বয়ে যায় বঙ্গের বিশিষ্টজনেদের তরফেও৷