মুম্বই– সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর ৬ দিন আগে মৃত্যু হয় তাঁর প্রাক্তন ম্যানেজার দিশা সালিয়ানের। বিভিন্ন জায়গা থেকে অভিযোগ উঠছে যে এই দুই মৃত্যুর মধ্যে কোনও যোগ রয়েছে। ৮ জুন মৃত্যুর দিশার। মুম্বই পুলিশ জানায় ১৪ তলা বহুতল থেকে ঝাঁপ দিয়ে আত্মঘাতী হয়েছেন তিনি।

মৃত্যুর আগে বাড়িতে বন্ধুদের সঙ্গে পার্টি করছিলেন দিশা। সেই পার্টি ভিডিও সম্প্রতি ভাইরাল হলো ইন্টারনেটের। দিশার মৃত্যুর ঘটনার সামনে আসার সঙ্গে সঙ্গে সংবাদ মাধ্যমে খবর প্রকাশিত হয় যে তিনি আত্মঘাতী হয়েছেন। কিন্তু তদন্তের আগেই কিভাবে বলে দেওয়া হয় তিনি আত্মঘাতী হয়েছেন তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। দ্বিতীয়ত পার্টি করছিলেন দিশা।

আর তারপরেই কেউ কেন আত্মহত্যার পথ বেছে নিতে পারেন, এমন প্রশ্নও উঠছে। বেশ কিছু কন্সপিরেসি থিওরি ঘুরছে ইন্টারনেট জুড়ে। আর তার ফলেই মনে করা হচ্ছে সুশান্তের মৃত্যুর সঙ্গে কি কোনো রকমের যোগ রয়েছে দিশা সালিয়ানের মৃত্যুর?

সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে দিশা তাঁর বন্ধুদের সঙ্গে পার্টিতে যথেষ্ট আনন্দ করছেন। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে হৃতিক রোশনের ছবি মিশন কাশ্মীর এর একটি গানে নাচছেন দিশা। দিশার বন্ধুদেরও নাচতে দেখা যাচ্ছে। সম্প্রতি সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়া টুডের হাতে এসেছ দিশা সালিয়ানের এক বন্ধুর হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট।

সেখান থেকেই জানা যাচ্ছে সেই রাতে ঠিক কী হয়েছিল।

ওই হোয়াটসঅ্যাপ মেসেজ থেকে জানা যাচ্ছে, দিশা তাঁর বন্ধু ও ফিয়ন্সের সঙ্গে সেদিন পার্টি করছিলেন। পার্টিতে মাত্রাতিরিক্ত মদ্যপান করেছিলেন তিনি। আর তার পরে নাকি অবসাদগ্রস্ত হয়ে পড়েন তিনি। মদ্যপ অবস্থায় বলতে থাকেন, কেউ কারও জন্য ভাবিত নয়। তখন এক বন্ধু দিশাকে পার্টির মেজাজ নষ্ট করতে না করেন। তখনই দিশা ঘরে ঢুকে তা ভিতর থেকে লক করে দেন। বহুক্ষণ কোনও সাড়া না পেয়ে তাঁকে ডাকা হয়।

তিনি সাড়া না দিলে ফিয়ন্সে ও অন্যান্য বন্ধুরা দরজা ভেঙে ঢোকেন। দেখেন ব্যালকনি থেকে ঝাঁপ দিয়েছেন দিশা। সঙ্গে সঙ্গে তাঁরা ছুটে নীচে যান। তখনও দিশা জীবিত ছিলেন। কিন্তু হাসপাতালে নিয়ে যেতে তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়।

কিছুদিন আগে সাংবাদিক বৈঠকে বিজেপি নেতা তথা মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী নারায়ন রানে দাবি করেন দিশাকে ধর্ষণ করে খুন করা হয়েছে। যদিও টাইমস নাও এর প্রতিবেদন থেকে জানা যাচ্ছে, দিশার ময়নাতদন্ত রিপোর্টে কোনো রকম যৌন হেনস্থার উল্লেখ নেই।

কিন্তু আরও একটি বিষয় নতুন করে রহস্যের দানা বেঁধেছে। জানা যাচ্ছে দিশার মৃতদেহে কোনো পোশাক ছিল না। প্রসঙ্গত দিশার ঘটনার ৬ দিন পরে অর্থাৎ ১৪ জুন বান্দ্রা ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার হয় সুশান্ত সিং রাজপুত এর ঝুলন্ত দেহ। ঘটনার তদন্ত করছে সিবিআই।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও