মুম্বই: ক্যাটরিনা কাইফ ও ভিকি কৌশল নাকি প্রেম করছেন। বেশ কিছুদিন ধরে বি-টাউন এই গুঞ্জনে সরগরম। দুজনকে একসঙ্গে বেশ কয়েকবার ক্যামেরাবন্দিও করেছেন পাপারাৎজিরা। কিন্তু সত্যিই কি দুজনে সম্পর্কে রয়েছেন! এই ব্যাপারে কোনও কিছুই বলতে নারাজ ভিকি। সম্পর্কের কথা যেমন মেনে নেননি, তেমনই অস্বীকারও করেননি অভিনেতা।

টেলিভিশন অভিনেত্রী হরলিন শেট্টির সঙ্গে বিচ্ছেদ হওয়ার পর থেকেই ক্যাটরিনার সঙ্গে তাঁকে নিয়ে গুঞ্জন শুরু হয়। এক সংবাদমাধ্যমের চ্যাট শোয়ে এই বিষয়ে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন, আমার মনে হয় আপনিও বিষয়টিকে সম্মান করবেন। আমি আমার ব্যক্তিগত জীবনকে সত্যিই আড়ালে রাখতে চাই। কারণ খোলাখুলি কথা বললেই সেটা নিয়ে আলোচনা হবে এবং ভুল ভাবে ব্যাখ্যা করা হবে। যেটা আমি একেবারেই চাইছি না। আমার মনে হয় নিজের ব্যক্তিগত জীবন কিছুটা আড়ালে রাখাই ভালো। তাই আমি এই বিষয় নিয়ে কথা বলতে চাইছি না।

গত বছর একটি দিওয়ালি পার্টিতে একসঙ্গে আসতে দেখা যায় ভিকি ও ক্যাটরিনাকে। একসঙ্গে ডিনার ডেটেও ক্যামেরাবন্দি হন দুজনে। এর পর থেকেই জল্পনা তুঙ্গে ওঠে। কানাঘুষো খবর, দুজন নাকি পরস্পরকে গুরুত্বও দিচ্ছে। যদিও কেউই সম্পর্কের কথা স্বীকার করেননি।

প্রসঙ্গত, এই মুহূর্তে ভিকি কৌশল ভানুপ্রতাপ সিং-এর ছবি ভূত পার্ট ১: দ্য হন্টেড শিপ নিয়ে ব্যস্ত। এই ছবিতে রয়েছেন আশুতোষ রানা ও ভূমি পেডনেকর। ছবিটি মুক্তি পাবে আগামী ২১ ফেব্রুয়ারি। অন্যদিকে ক্যাটরিনা কাইফ সূর্যবংশীর শ্যুটিং নিয়ে ব্যস্ত।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।