trimmer

আজকের দিনে মানুষের কাছে ট্রিমার যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ। পুরুষদের কাছে অত্যন্ত দরকারি জিনিসগুলির মধ্যে একটি হল এই ট্রিমার। আর সেই কারণে একাধিক কোম্পানির তরফে বাজারে আনা হয়েছে এই পন্য। মূলত বাড়ি থেকেই যাতে অল্প সময়ের মধ্যে নিজেদের দাড়ি ঠিক করতে পারেন সে ক্ষেত্রে বাজারে আনা হয়েছে vega t3 beard trimmer। আর তা যথেষ্ট জনপ্রিয় হয়েছে সকলের কাছেই।

 

আজকের দিনে সাধারণ মানুষের জন্য বাজারে বিভিন্ন কোম্পানির তরফে আনা হয়েছে বিভিন্ন ধরনের ট্রিমার। আর তা ব্যবহার করেন বিপুল সংখ্যক মানুষজন। বিশেষ করে অল্প বয়সী কিশোরদের কাছে যথেষ্ট জনপ্রিয় এই ট্রিমার। আর সেই কারণেই অল্প বয়সীদের কাছে জনপ্রিয়তা বজায় রাখার জন্য বিভিন্ন কোম্পানির তরফে বাজারে আনা হয়েছে বিভিন্ন ধরনের ট্রিমার। এমনকি ক্রেতাদের বাজেটের কথা ভেবে আনা হয়েছে বিভিন্ন বাজেটের ট্রিমার। এবারে অ্যামাজনে নিয়ে আসা হয়েছে নতুন vega t3 beard trimmer। অ্যামাজন বরাবর ক্রেতাদের কাছে জনপ্রিয় একটি ই কমার্স সাইট। আর ক্রেতাদের কথা ভেবে তাদের তরফে দেওয়া হয়ে থাকে ছাড়ের সুবিধা।

 

অ্যামাজনে vega t3 beard trimmer পাওয়া যাবে ২৮ শতাংশ ছাড়ে। অর্থাৎ ক্রেতাদের এই vega t3 beard trimmer কেনার জন্য খরচ করতে হবে ৯৪০ টাকা। এর ফলে ক্রেতারা বাঁচাতে পারবেন ৩৫৯ টাকা। পাশপাশি রয়েছে অ্যামাজন পে icici ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করে এই trimmer কিনলে পাবেন ৫ শতাংশ ছাড়ের সুবিধা। এছাড়াও বাকিদের জন্য থাকবে ৩ শতাংশ ছাড়ের সুবিধা। এতে রয়েছে usb charging cable ব্যবহারের সুবিধা। একবার চার্জ করে অনেকক্ষণ পর্যন্ত ব্যবহার করা যাবে এই trimmer। এতে রয়েছে পরিস্কার এবং স্টেইনলেস ষ্টীলের ব্লেড। ফলে কেটে যাওয়ার ভয় নেই। পাশপাশি সহজেই এই ব্লেড পরিষ্কার করতে পারবেন ব্যবহারকারীরা। ২ ঘণ্টা চার্জ দিলে নাগাড়ে ৪০ মিনিট পর্যন্ত ব্যবহার করা যাবে এই trimmer। অর্থাৎ ক্রেতাদের জন্য এবারে অ্যামাজনে আনা হল নতুন ছাড়ের সুবিধা। অল্প দাম হওয়ার ফলে সব ধরনের ক্রেতারা কিনতে পারবেন এই rimmer।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।