ফাইল ছবি

নয়াদিল্লিঃ  অসামরিক কর্মীর সঙ্গে ঘনিষ্ঠ অবস্থায় কর্নেল। তাও কিনা একেবারে ব্যাটেলিয়ান অফিসের মধ্যেই। আর সেই ঘনিষ্ঠ হওয়ার ভিডিও তুলে অভিযোগ জানালেন দুই জওয়ান। জানা গিয়েছে, অভিযুক্ত ওই কর্নেল বর্তমানে রিটায়ার্ড করেছেন। তবে তাঁর হাতে অনেকেই নির্যাতন হয়েছেন বলে অভিযোগ। আর সেই তালিকাতে এই দুই অভিযোগকারিনীও রয়েছেন বলে দাবি জাতীয় এক সংবাদমাধ্যমে। ইতিমধ্যে গোটা ভিডিওটি কোর্ট অফ এনকোয়ারিতে পাঠানো হয়েছে। শুধু তাই নয়, ইতিমধ্যে বিষয়টি নিয়ে কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংকেও জানানো হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। বিষয়টি প্রমাণ হলে কড়া শাস্তির মুখে পড়তে হবে ওই সেনা অফিসারকে।

জানা গিয়েছে, পঞ্জাবের আবহারে পোস্টিং ছিলেন অভিযুক্ত ওই প্রাক্তন অফিসার । অন্যদিকে ২৫ রাজপুতানা রাইফেলসে নিযুক্ত জওয়ান রাজনাথ সিংকে পাঠানো চিঠিতে লিখেছেন, ওই অফিসার নানান ছলে মহিলা জওয়ানদের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ হওয়ার চেষ্টা করতেন। যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছেন তাঁরাও। এই ঘটনায় সেনাবাহিনীতে তীব্র চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে। কীভাবে এই ঘটনা ঘটল তা যথেষ্ট গুরুত্ব দিয়ে দেখা হচ্ছে।

ফাইল ছবি

জানা গিয়েছে, খোদ প্রতিরক্ষামন্ত্রক বিষয়টি যথেষ্ট গুরুত্ব দিয়ে দেখছে বলে জানা যাচ্ছে। তবে অভিযুক্ত ওই সেনা আধিকারিককে কোনও কারণে ব্যাকমেল করা হচ্ছে কিনা সেটাও অবশ্যই খতিয়ে দেখা হবে। তাই সমস্ত দিক খতিয়ে দেখা হবে সেনা সূত্রে জানা গিয়েছে। তবে দোষ প্রমাণিত হলে অভিযুক্ত ওই সেনা অফিসারের কড়া শাস্তি হবেই। প্রথমে কোর্ট-মার্শেল হবে। এরপর আর্মি অ্য়াক্টের ধারা অনুযায়ী কড়া শাস্তি হবে ওই আধিকারিকের।