দুর্গাপুর: দিল্লির জওহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয়ে রবিবার সন্ধেয় দুষ্কৃতীদের হাতে আক্রান্ত হন দুর্গাপুরের মেয়ে ঐশী ঘোষ৷ জেলার মেয়ে আক্রান্ত হওয়ার প্রতিবাদে মঙ্গলবার দুর্গাপুরে প্রতিবাদ মিছিল করে টিএমসিপি নেতৃত্ব৷ দুর্গাপুর সরকারি মহাবিদ্যালয়ের টিএমসিপি নেতৃত্বের উদ্যোগে মঙ্গলবার বিকেলে কলেজ চত্বর থেকে প্রতিবাদ মিছিল বের হয়। দুর্গাপুর সিটি সেন্টার পর্যন্ত মিছিল হয়৷ সেই প্রতিবাদ মিছিলেই পা মেলান কলেজের অধ্যক্ষ পুরুষোত্তম প্রামাণিক। সরকারি কলেজের অধ্যক্ষের একটি রাজনৈতিক দলের সংগঠনের মিছিলে যোগ দেওয়া নিয়ে ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে বিতর্ক৷

রবিবার সন্ধেয় দিল্লিতে জওহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয়ে আচমকা কাপড়ে মুখ ঢেকে ঢুকে পড়ে ৪০-৫০ জনের দুষ্কৃতীদের একটি দল৷ হাতে রড, লাঠি, বাঁশ নিয়ে ঢুকে গোটা ক্যাম্পাসে রীতিমতো তাণ্ডব চালায় দুষ্কৃতীরা৷ গার্লস হস্টেলে চড়াও হয়ে ব্যাপক ভাঙচুর চালানো হয়৷ বেছে বেছে বেধড়ক মারধর করা হয় বাম ছাত্র সংগঠনের কর্মীদের৷ রডের আঘাতে মাথা ফাটে জেএনইউয়ের বাম ছাত্র সংসদের সভানেত্রী ঐশী ঘোষের৷ হামলায় গুরুতর জখম হন আসানসোলের বাসিন্দা ঐশী ঘোষ৷ মাথা ফেটে রক্ত ঝরতে শুরু করে ওই বাম ছাত্রনেত্রীর৷ দুষ্কৃতী হামলায় গুরুতরভাবে জখম হন আরও বেশ কয়েকজন বাম ছাত্র সংগঠনের কর্মী৷ হামলার অভিযোগ ওঠে বিজেপির ছাত্র সংগঠন এবিভিপির বিরুদ্ধে৷

জেএনইউয়ে হামলার প্রতিবাদে সরব হয়েছে বিজেপি বিরোধী একাধিক রাজনৈতিক দল৷ দোষীদের চিহ্নিত করে কড়া শাস্তির দাবি উঠেছে সমাজের বিভিন্ন মহলে৷ রাজনৈতিক দল থেকে শুরু করে বুদ্ধিজীবীরাও পথে নেমে প্রতিবাদে সামিল হয়েছে৷ বলিউড থেকে শুরু করে টলিউডের শিল্পীরাও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে হামলার নিন্দায় সরব হয়েছেন৷ একইভাবে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে প্রতিবাদে গর্জে উঠেছেন কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা৷

এদিকে, মঙ্গলবার দুর্গাপুর সরকারি মহাবিদ্যালয়ের আইএনটিটিইউসির তরফেও একটি প্রতিবাদ মিছিল বের হয়৷ ঐশী ঘোষের উপর হামলার প্রতিবাদে সরব হন আইএনটিটিইউসি নেতৃত্ব৷ কলেজ চত্বর থেকে মিছিল শুরুর পরই সেই মিছিলে যোগ দেন কলেজের অধ্যক্ষ পুরুষোত্তম প্রামাণিক৷ সরকারি কলেজের অধ্যক্ষের রাজনৈতিক মিছিলে যোগ দেওয়া নিয়ে প্রতিবাদে সরব হয়েছে পশ্চিম বর্ধমান জেলা বিজেপি৷পশ্চিম বর্ধমান জেলা বিজেপির সভাপতি লক্ষণ ঘোড়ুই বলেন, ‘একটি কলেজের অধ্যক্ষ রাজনৈতিক সংগঠনের মিছিলে হাঁটছেন। এটাই এখন পশ্চিমবঙ্গের সংস্কৃতি।’

যদিও টিএমসিপির তরফে জানানো হয়েছে, মঙ্গলবার কোনও বিশেষ ছাত্র সংগঠনের তরফে মিছিল করা হয়নি৷ ঐশী ঘোষ এসএফআইয়ের নেত্রী৷ সব ছাত্র-ছাত্রীদের বিচারের জন্য লড়াই করতে গিয়ে আক্রান্ত হয়েছেন ঐশী। ঐশী ঘোষদুর্গাপুরের মেয়ে। সবাই মিলে বিজেপির বিরুদ্ধে আন্দোলন করেছি। অধ্যক্ষ মিছিলে হাঁটেননি।’

এদিকে, দুর্গাপুর মহাবিদ্যালয়ের পুরুষোত্তম প্রামাণিক বলেন, ‘মিছিলে কোনও রাজনৈতিক সংগঠনের ব্যানার ছিল না। প্রতিবাদ জানানো উচিত বলে মনে করেছি। তাই ওই মিছিলে সামিল হয়েছিলাম৷ জেনএইউয়ে হামলা অত্যন্ত নিন্দনীয় একটি ঘটনা৷’