মুম্বই: গ্রেড ভিত্তিতে বিসিসিআই সদ্য চুক্তিবদ্ধ ক্রিকেটারদের যে তালিকা প্রস্তুত করেছে সেখানে অল-রাউন্ডার রবীন্দ্র জাদেজার অবস্থানে চূড়ান্ত হতাশ মাইকেল ভন। বিরাট কোহলি, রোহিত শর্মাদের সঙ্গে জাদেজার ফারাক একেবারেই মানতে নারাজ প্রাক্তন ইংরেজ অধিনায়ক। এই ঘটনা রবোন্দ্র জাদেজার মতো ক্রিকেটারের জন্য চূড়ান্ত অপমানজনক বলে মনে করেছেন প্রাক্তন ইংরেজ তারকা। এই মর্মে জাদেজাকে কোহলির পর ভারতীয় দলের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ আখ্যা দিয়েছেন ভন।

অস্ট্রেলিয়া সফরে সিডনিতে তৃতীয় টেস্টে আঙুলে চোট পেয়ে সাময়িক বাইশ গজ থেকে দূরে ছিলেন ভারতীয় দলের ইউটিলিটি অল-রাউন্ডার। আইপিএলের মধ্যে দিয়ে বাইশ গজে প্রত্যাবর্তন ঘটেছে তাঁর। সেখানে চেন্নাই সুপার কিংসের দ্বিতীয় ম্যাচে জয়ে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা নিয়েছেন ‘জাড্ডু’। কেবল কৃপণ বোলিং করাই নয় (৪ ওভারে ১৯ রান), তাঁর সহজাত ফিল্ডিং দক্ষতায় পঞ্জাবের দুই মারকুটে ব্যাটসম্যানকে প্যাভিলিয়নে ফিরিয়েছেন জাদেজা। উল্লেখ্য, শুক্রবার জাদেজার পিন-পয়েন্ট থ্রো-তে রান-আউট হয়ে ডাগ-আউটে ফিরতে হয়েছে পঞ্জাব অধিনায়ক কেএল রাহুলকে। পাশাপাশি ব্যাকওয়ার্ড পয়েন্টে দুরন্ত ক্যাচে ক্রিস গেইলকে তালুবন্দি করেছেন জাদেজা।

যা দেখার পর নিজেকে সামলে রাখতে পারেননি ভন। টুইটে তাঁর হতাশার বহিঃপ্রকাশ ঘটিয়েছেন প্রাক্তন ইংরেজ অধিনায়ক। ইএস ক্রিকইনফোর একটি টুইট উদ্ধৃত করে তিনি লিখেছেন, ‘অপমানজনক। কোহলির ঠিক পরেই জাদেজার থাকা উচিৎ।’ ক্রিকইনফোর সংশ্লিষ্ট ওই টুইটে জানানো হয়েছিল, বিসিসিআই’য়ের গ্রেড ভিত্তিক চুক্তিতে প্রাথমিকভাবে জাদেজার প্রমোশন পাওয়ার কথা থাকলেও শেষ অবধি তা হয়নি। আর এই ঘটনাতেই বেজায় চটেছেন ভন।

উল্লেখ্য, বিসিসিআই’য়ের কেন্দ্রীয় চুক্তিতে ‘এ+’ গ্রেডে রয়েছেন মাত্র ৩ জন ক্রিকেটার। এই তিনজন হলেন অধিনায়ক বিরাট কোহলি, সংক্ষিপ্ত ফর্ম্যাটে কোহলির ডেপুটি রোহিত শর্মা এবং স্পিডস্টার জসপ্রীত বুমরাহ। অশ্বিন, পূজারা, ধাওয়ান, রাহানে, শামি, রাহুলদের সঙ্গে ‘এ’ গ্রেডে রয়েছেন জাদেজা। কিন্তু কোহলি, রোহিত, বুমরাহর সঙ্গে জাদেজার গ্রেডেশনের এই বৈপরীত্য একেবারেই না-পসন্দ ভনের। তিন ফর্ম্যাটেই জাদেজার অবাধ বিচরণ সত্ত্বেও এই পার্থক্য খুশি করেনি ভনকে। বোর্ডের কেন্দ্রীয় চুক্তি অনুযায়ী ‘এ+’ গ্রেডভুক্ত তিন ক্রিকেটারের আয় বার্ষিক ৭ কোটি টাকা। আর ‘এ’ গ্রেডভুক্ত ক্রিকেটাররা পান বার্ষিক ৫ কোটি টাকা।

সম্প্রতি জাতীয় দলের একমাত্র ক্রিকেটার হিসেবে বোর্ডের কেন্দ্রীয় চুক্তিতে প্রোমোশন হয়েছে অল-রাউন্ডার হার্দিক পান্ডিয়ার। ‘বি’ থেকে ‘এ’ গ্রেডে উন্নীত হয়েছেন এই অল-রাউন্ডার। অক্টোবর ২০২০-সেপ্টেম্বর ২০২১ বর্ষের জন্য ঘোষিত কেন্দ্রীয় চুক্তির তালিকায় অবনতি ঘটেছে ফাস্ট বোলার ভুবনেশ্বর কুমার এবং চায়নাম্যান কুলদীপ যাদবের।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.