ঘুমাতে কে না পছন্দ করে ? কাজের ফাঁকে একটু ঘুমিয়ে নিতে প্রায় সব বয়সের মানুষই পছন্দ করেন। কাজ পাগল আর ঘুম পাগল নয় এমন ব্যক্তির সংখ্যাও হাতে গোনা বললেই চলে। কিন্তু ঠিক ভাবে ঘুমোচ্ছেন কী? মানে আপনার ঘুম আপনার পরিবারের বিপদ ডেকে আনছে না তো? সময় থাকতে জেনে নিন, ঠিক কোন দিকে মাথা রেখে ঘুমোলে বিপদ এড়াতে পারবেন, আসবে সাফল্য৷

সব কাজের সময় যখন বাস্তু মত মেনে চলা হয় তবে ঘুমের বেলা নয় কেন? মানুষের জীবনে মঙ্গল অমঙ্গলের ব্যাপারে ঘুমের অবদান কিন্তু অনস্বীকার্য। তার কারন হল রাতে ঘুম ভালো হলে তো সকালের সব কাজই সুষ্ঠুভাবে হয়, কিন্তু যদি ঠিকঠাক ঘুম না হয় তাহলে সকালের কাজে কি আপনি মন বসাতে পারেন ঠিকমত ?

আচার্য ইন্দু প্রকাশ জানিয়েছেন, বাস্তু মতে জীবনযাপন করলে বাস্তু শাস্ত্র আপনার জীবনে অনেক বড় পরিবর্তন এনে দিতে পারে। ঘুম নিয়ে আলোচনায় বাস্তু শাস্ত্রিকা ইন্দু প্রকাশ জানিয়েছেন, প্রত্যেক মানুষই ঘুমাতে পছন্দ করেন। এই ঘুমানোর ধরন ব্যক্তি বিশেষে আলাদা আলাদা হওয়ায় স্বাভাবিক।

তিনি আরও বলেন, ঘুমানোর সময় অনেকেই আছেন যারা আলো জ্বালিয়ে ঘুমাতে পছন্দ করেন। আবার কেউ কেউ আছেন যারা ঘুমানোর সময় বিছানার চারিপাশে বালিশ ছড়িয়ে ঘুমতে যান। তিনি জানিয়েছেন বাস্তু শাস্ত্র মতে যে কোনও একটি নিয়ম মেনে চললে আপনার রাতের ঘুম আরও ভালো হয়ে উঠবে ।

কী সেই নিয়ম জানতে হলে আপনাকে আরও একটুখানি ধৈর্য্য ধরে পড়তে হবে।

বাস্তু শাস্ত্রে ঘুমানোর জন্য উত্তর -দক্ষিন, পূর্ব- পশ্চিম এই চারটি দিকের কথা বলা হয়েছে। যদিও এই চারটি দিকের সব কটি দিকই যে ঘুমের জন্য ভালো কাজ দেবে তেমনটা নয়৷ এই ক্ষেত্রে সব থেকে বড় ভূমিকা পালন করছে আপনার শোবার ঘরের বিছানাটি। কারন ঘরের অন্য আসবাবপত্রের মত বিছানাও সঠিক দিকে রাখা থাকলে রাতে আপনাকে সুন্দর ঘুম উপহার দিতে বাধ্য আপানার বিছানা। সুতরাং এই ব্যাপারে দিক নির্দেশ মেনে বিছানা সাজানো একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।

বাস্তু শাস্ত্র বলছে, আপনি যখন ঘুমাতে যাবেন তখন আপনার মাথা দক্ষিন দিকে এবং পা উত্তর দিকে রেখে ঘুমানো ভালো। এছাড়াও ইন্দু প্রকাশ জানিয়েছেন, এমন অনেকেই আছেন যারা মাঝে মধ্যেই স্বাস্থ্য নিয়ে ভোগেন তাঁদের জন্য দক্ষিন দিকে মাথা রেখে ঘুমানো খুবই কার্যকারী হবে। কারন ঘুম এবং স্বাস্থ্য সংক্রান্ত সমস্যার সমাধানে দক্ষিন দিক বেশ ভালো বলে জানাচ্ছে বাস্তু শাস্ত্র।