বারাণসী: জয় শ্রী রাম ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ জাতীয় রাজনীতির হট ইস্যু৷ সেই ইস্যুতে আরও বিতর্ক যোগ করতে বারাণসী থেকে রামচরিতমানস উপহার পাঠালেন এক মহন্ত৷ মহন্ত বালাক দাস শ্রী রামচরিতমানসের একটি সংস্করণ পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে পাঠিয়েছেন৷

মমতার মন শুদ্ধ করা প্রয়োজন বলে মনে করছেন বালাক দাস৷ তিনি বলেন রামচরিতমানস এমন এক গ্রন্থ, যা পড়লে মন শুদ্ধ হয়, স্থির হয়৷ পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই মুহুর্তে মন স্থির করা খুব প্রয়োজন৷ তাই তাঁকে রামচরিতমানস পাঠানো হয়েছে৷

বারাণসী পাতালপুরী মন্দিরে বসে সংবাদসংস্থা এএনআইকে তিনি বলেন শ্রী রামকে ভালো করে চিনলে, জানলে জয় শ্রী রাম শ্লোগান নিয়ে আর কোনও সমস্যা থাকবে না মমতার৷ আর তাঁকে রামকে চেনাতে সাহায্য করবেন এই মহন্ত বলে দাবি বালাক দাসের৷ তিনি বলেন ওই বইয়ের সাথে নিজের ফোন নম্বরও পাঠিয়ে দিয়েছেন তিনি৷ যাতে প্রয়োজনে তাঁর থেকে রাম সম্পর্কে জ্ঞান আহরণ করতে পারেন মমতা৷ প্রয়োজন পড়লে মমতাকে রামায়ণও পাঠানো হবে বলে কটাক্ষ করেছেন তিনি৷

আরও পড়ুন : রাজস্থান কংগ্রেসে বাড়ছে ফাটল, মুখ্যমন্ত্রী পদে দল ভারি হচ্ছে পাইলটের

বুধবারই জয় শ্রী রাম শ্লোগান ইস্যুতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কটাক্ষ করেছেন বিজেপি সাংসদ অজয় ভাট৷ মমতাকে ষাঁড়ের সঙ্গে তুলনা করে তিনি বলেছিলেন তিনি বলেছিলেন কোনও ষাঁড়কে লাল কাপড় দেখালে, সে যেমন ক্ষেপে গিয়ে তেড়ে আসে, ঠিক তেমনই আচরণ করছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ জয় শ্রী রাম শুনলেই রেগে যাচ্ছেন তিনি৷ সেই শ্লোগানকে গালাগালি বলছেন৷ অনেকটা পাগল ষাঁড়ের মতই আচরণ করছেন মমতা৷

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ধৈর্য্যচ্যুতি না ঘটানোর পরামর্শ দিয়েছেন এই বিজেপি সাংসদ৷ তিনি বলেন, গণতন্ত্রে প্রত্যেকের অধিকার রয়েছে শ্লোগান দেওয়ার৷ সেই অধিকার পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী ছিনিয়ে নিতে পারেন না৷ উত্তরাখণ্ডের নৈনিতাল-উধমসিং লোকসভা আসনের জয়ী সাংসদ বলেন মমতা ব্যানার্জীকে আরও শান্ত হতে হবে, ধৈর্য্য রাখতে হবে৷ উল্লেখ্য, এই অজয় ভাট উত্তরাখণ্ডের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ও কংগ্রেস নেতা হরিশ রাওয়াতকে পরাজিত করেছেন সাম্প্রতিক লোকসভা নির্বাচনে৷

আরও পড়ুন : কাশ্মীরে আল কায়েদার নয়া মাথা, জাকির মুসার জায়গায় আবদুল হামিদ

এদিকে, সম্প্রতি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে জয় শ্রী রাম লেখা ১০ লক্ষ পোস্টকার্ড পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিজেপি৷ তার পালটা তৃণমূলের পক্ষ থেকে জয় হিন্দ, বন্দেমাতরম ও জয় বাংলা লেখা ১০ হাজার পোস্টকার্ড পাঠানো হয়েছে৷ সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়াতে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়৷ তাতে দেখা যায় নির্বাচনী প্রচারে চন্দ্রকোনার পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় মুখ্যমন্ত্রীর কনভয়ের সামনে ‘জয় শ্রী রাম’ স্লোগান দেন কিছু সাধারণ গ্রামবাসী৷

আর তাতেই চটে গিয়ে গিয়ে কনভয় থামিয়ে রাস্তায় নেমে এসে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, আমাকে গালাগাল দিচ্ছে! সাহস থাকলে সামনে আয়৷ পালাচ্ছিস কেন? সংবাদমাধ্যম সূত্রের খবর এরপর ‘জয় শ্রী রাম’ স্লোগান দেওয়ার ‘অপরাধে’ তিনজনকে আটক করে পুলিশ৷

স্বামীর সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে বস্ত্র ব্যবসাকে অন্যমাত্রা দিয়েছেন।'প্রশ্ন অনেকে'-এ মুখোমুখি দশভূজা স্বর্ণালী কাঞ্জিলাল I