বসিরহাট : ভালোবাসার দিন ভ্যালেন্টাইন্স ডে’তে ও গোলাপ ফুলের মধ্যে এনআরসি, ও সিএএ বিরোধী স্লোগান লিখে এক অভিনব প্রতিবাদে শামিল হলেন উত্তর ২৪ পরগনার বসিরহাটের বাসিন্দারা। এই রাজ্যে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের প্রতিবাদে শান্তিপূর্ণভাবে আন্দোলনের ডাক দিয়েছে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

সেই আন্দোলনকে আজ সাফল্য দিতে গোলাপের পাপড়িকে বেছে নেওয়া হয়েছে। রাজ্য দেশ ও বিদেশে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরোধিতায় তোলপাড়। এখনও আন্দোলন চলছে সারা দেশ জুড়ে। এই আন্দোলনের প্রতিবাদের ভাষা খুঁজে পাওয়া গিয়েছে বিয়ের মঞ্চ থেকে জন্মদিনের কেক। আবার কখনও মিষ্টিতে। এবার ভালোবাসার দিনেও বাদ গেলোনা প্রতিবাদ। এই অভিনব প্রতিবাদ শুরু হল গোলাপ ফুলের মধ্য দিয়ে। কেউ কাছের মানুষকে নো এন আর সি লেখা এই গোলাপ দিয়ে তাদের প্রতিবাদের ভাষা রূপে ব্যবহার করে এনআরসি বিরোধী আন্দোলনকে ছড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেছেন। আবার কেউ পরিবারের লোককে গোলাপ ফুল তুলে দিয়েছেন।

বসিরহাট টাকি রোড শিরিষতলা তলায় ফুল ব্যবসায়ী ও কবি রমজানের আলী মন্ডলের দোকান। দিন ও রাতে ঘুম কেড়েছে তাঁর এখন। গোলাপের উপর নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরোধিতা লেখা এহেন একগুচ্ছ ফুলের উপর অর্ডার পেয়েছে। অন্যদিকে সকাল থেকে নিজের মনের মানুষকে গোলাপ ফুলের মধ্য দিয়ে এন আর সি,সিএএ,এন পি আর লেখা গোলাপ দেওয়ার চাহিদা দেখা গিয়েছে। সকাল থেকেই প্রেমিক-প্রেমিকার ভিড় গোলাপ কেনার জন্য। এই অভিনব প্রতিবাদের ভাষা যে নতুন মাত্রা নেবে তা বলা বাহুল্য।

 

সারাবিশ্বে আজকে ভালোবাসার দিন হিসেবে ১৪ই ফেব্রুয়ারি উদযাপিত হয়। আর তার মধ্য দিয়ে সকাল থেকে গোলাপ ফুলের মধ্য দিয়ে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরোধিতায় পথে নেমেছে ছাত্র-ছাত্রী থেকে শুরু করে ব্যবসায়ী ও সমাজের বিভিন্ন স্তরের মানুষ। গোলাপের রং লাল হলুদ গোলাপি ফুলের ওপরে নো এনআরসি, এনপিআর প্রতিবাদ ছড়িয়ে পরল ভ্যালেন্টাইন ডেতেও।