দেরাদুন: মোদী জিতেছে৷ সেই খুশিতে যাত্রীদের থেকে ভাড়া নিচ্ছেন না যমুনা প্রসাদ৷

পেশায় অটোচালক যমুনা প্রবল মোদী ভক্ত৷ এবারের লোকসভা ভোটে বিপুল ভোটে মোদী জিতে যাওয়ায় দারুণ খুশি সে৷ এতটাই খুশি যে যাত্রীদের কাছ থেকে এক কানাকড়িও নিচ্ছেন না৷ স্পষ্ট করে বললে বিনা পয়সায় যাত্রীদের তাদের গন্তব্যে পৌঁছে দিচ্ছেন৷ মোদীর শপথগ্রহণ না হওয়া অবধি এই পরিষেবা দিয়ে যাবেন বলে ঠিক করেছেন৷

উত্তরাখাণ্ডের হলদওয়ানি জেলার বাসিন্দা যমুনার কথায়, মোদী ফের প্রধানমন্ত্রী হওয়ায় আমি খুব খুশি হয়েছি৷ তিনি সবার কথা ভাবেন৷ সমাজের প্রত্যের স্তরের মানুষের হয়ে কথা বলেন৷ ১৩০ কোটি মানুষকে নিয়ে চলতে চান৷’’ প্রতিদিন অটো চালিয়ে হাজার টাকা রোজগার হয় তাঁর৷ নিজেই সেই রোজগারের রাস্তা বন্ধ করেছেন৷ তাতে যমুনার কোনও হেলদোল নেই৷ জানান, মোদী যতদিন না প্রধানমন্ত্রী হিসাবে শপথ নেবেন ততদিন এই ফ্রি পরিষেবা চালিয়ে যাবেন৷ উল্লেখ্য, আগামী ৩০ মে রাষ্ট্রপতি ভবনে সন্ধ্যে সাতটায় দ্বিতীয়বার প্রধানমন্ত্রী হিসাবে শপথ নেবেন মোদী৷

২০১৪ সালে যে মোদী ঝড় উঠেছিল পাঁচ বছর পর সেই ঝড়ের গতিবেগ বেড়ে যায়৷ গতবারের পাওয়া ২৮২টি আসন থেকে ২২টি আসন এবার বেশি পায় বিজেপি৷ এনডিএ’র ঝুলিতে আসে ৩৫২টি আসন৷ পরপর দু’বার একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে সরকার গড়ার পথে নজির তৈরি করে বিজেপি৷ ইন্দিরা গান্ধীর পর নরেন্দ্র মোদী প্রথম ব্যক্তি যিনি এই ধারা বজায় রাখেন৷ এছাড়া প্রথম অকংগ্রেসী দল হিসাবে পরপর দু’বার একক ক্ষমতায় সরকার গড়ার ইতিহাস তৈরি করে বিজেপি৷