দেরাদুন: খা খা করছে সরকারি অফিস৷ ফাঁকা টেবিল চেয়ার৷ আমলারা ছাড়া অফিসে আসেননি অধিকাংশ সরকারি কর্মচারি৷ বৃহস্পতিবার সকলে একযোগে গণছুটিতে গিয়েছেন৷ শিকেয় উঠেছে সরকারি কাজকর্ম৷

সময়মতো প্রমোশন ও ভাতা বৃদ্ধির দাবিতে উত্তরাখণ্ড সরকার ও সরকারি কর্মচারিদের মধ্যে টানাপোড়েন চলছে বেশ কিছুদিন ধরেই৷ দাবি পূরণ না হলে ৩১ জানুয়ারি গণছুটিতে যাবেন তারা এই হুঁশিয়ারি আগেই দিয়ে রেখেছিলেন  রাজ্যের আড়াই লক্ষ সরকারি কর্মীরা৷ সরকারও পাল্টা হুঁশিয়ারি দিয়ে জানায়, এইভাবে গণছুটি নিতে পারেন না সরকারি কর্মীরা৷ যদি তারা ছুটি নেন তাহলে কড়া শাস্তির মুখে পড়তে হবে৷

সরকারের হুঁশিয়ারি উপেক্ষা করে বৃহস্পতিবার অনেক সরকারি কর্মচারি অফিসমুখো হননি৷ জানিয়েছেন, আগামী ৪ ফেব্রুয়ারি ব়্যালি করে রাজ্যের সদর অফিসে যাবেন৷ তারপরেও যদি দাবি দাওয়া না মানা হয় তাহলে গোটা রাজ্য তারা অচল করে দেবেন৷

এদিকে এই ঘটনা ক্ষুব্ধ রাজ্য সরকার জানিয়েছে, এই সব বরদাস্ত করা হবে না৷ অফিস না কর্মীদের শাস্তির মুখে পড়তেই হবে৷ এক আমলা জানিয়েছেন, ৩১ জানুয়ারি ও ৪ ফেব্রুয়ারি যারা ছুটি নিয়েছেন তাদের অফিসে ঢুকতে দেওয়া হবে না৷ তবে যারা এই দুই দিন কাজ করতে চাইবে তাদের পর্যাপ্ত নিরাপত্তা দেওয়া হবে৷