লখনউ: ভয়াবহ পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু হল ৭ জনের৷ আহত হয়েছেন প্রায় ৩৪ জন৷ মৃতের সংখ্যা বাড়তে পারে বলে আশংকা করা হচ্ছে৷ ঘটনাটি ঘটে রবিবার উত্তরপ্রদেশের মইনপুরীর আগ্রা লখনউ এক্সপ্রেসওয়ের ওপর৷ একটি বাস ও ট্রাকের সংঘর্ষে এই মর্মান্তিক দুর্ঘটনাটি ঘটে৷

বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ট্রাকে ধাক্কা মারে বলে পুলিশ সূত্রে খবর৷ দুর্ঘটনার পরেই আহতদের এটাওয়ার সাইফাইতে পাঠানো হয় চিকিৎসার জন্য৷ মৃতদের দেহ দুমড়ে মুচড়ে যাওয়া বাসের মধ্যেই আটকে ছিল৷ পুলিশ এসে গ্যাস কাটার দিয়ে দেহগুলি উদ্ধার করে৷ দেহ উদ্ধারের জন্য ক্রেন নিয়ে আসা হয়৷

আরও পড়ুন : SriLankaBlast: ১০দিন আগেই নাশকতার বিষয়ে সচেতন করেছিলেন পুলিশ প্রধান

বেসরকারি বাসটি দিল্লি থেকে বেনারসে যাচ্ছিল৷ পথের মধ্যেই এই দুর্ঘটনা ঘটে৷ কারহাল পুলিশ স্টেশনের আধিকারিকরা ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন৷ উদ্ধার কাজে হাত লাগান৷ ছুটে আসেন স্থানীয় বাসিন্দারাও৷ পুলিশ সুপার অজয় শঙ্কর রায় ঘটনাস্থলে যান৷

৫ই এপ্রিল এই আগ্রা লখনউ এক্সপ্রেসওয়েতেই ট্রাক উলটে দুজনের মৃত্যু হয়৷ ট্রাকটিতে প্রচুর পরিমাণে চালের বস্তা নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল৷ দুর্ঘটনার পরে ট্রাকটির ডিজেল ট্যাঙ্ক ফেটে আগুন ধরে যায়৷ ওই দুর্ঘটনাটিও মইনপুরীতে ঘটেছিল৷ ট্রাকের চালক সুখরাম ও খালাসি ইরফানের ঘটাস্থলেই মৃত্যু হয়৷

আরও পড়ুন : তৃতীয় দফা ভোটের আগে ছত্তিশগড়ে এনকাউন্টারে খতম দুই মাওবাদী

তবে রবিবারের ঘটনায় পুলিশ জানিয়েছে বাসের চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেছিলেন৷ অতিরিক্ত গতিই এই দুর্ঘটনার কারণ বলে জানা গিয়েছে৷ শুধু ট্রাকটিতে নয়, ওই বাসটি ধাক্কা মারে একটি ফুলের দোকানে, তারপর রেলিংয়ে ধাক্কা মেরে ট্রাকে গিয়ে সজোরে ধাক্কা খায়৷