নয়ডা: বোনের মুখে অ্যাসিড ছুঁড়ে পালাল দুই দাদা৷ দিল্লির পার্শ্ববর্তী গ্রেটার নয়ডায় ঘটেছে এই মর্মান্তিক ঘটনা৷ ২২ বছরের ওই তরুণী নিজের দু চোখেরই দৃষ্টিশক্তি হারিয়েছে৷ মামলা দায়ের হওয়ার পর পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে নিজের দুই দাদাকেই হামলাকারী বলে চিহ্নিত করে ওই আক্রান্ত তরুণী৷

পুলিশকে ওই তরুণী জানিয়েছে, গ্রেটার নয়ডার কোট গ্রামে তাঁর ওপর আক্রমণ চলে৷ তাঁকে পুলিশ জিটি রোডের পাশ থেকে লোহারালি টোল প্লাজার কাছে উদ্ধার করে৷ সঙ্গে সঙ্গে তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়৷

টাইমস অফ ইণ্ডিয়ায় প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, দিল্লির সফদরজং হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে দেখা যায়, তরুণীর মুখের ৫০ শতাংশেরও বেশি পুড়ে গিয়েছে৷ পুলিশ জানিয়েছে ওই তরুণী উত্তরপ্রদেশের বুলন্দশহরের গুলাবাটি গ্রামের বাসিন্দা৷ সেখানে বাবা মা ও ওই দুই ভাইয়ের সঙ্গে বাস করে সে৷

আরও পড়ুন : জয় শ্রী রাম বলায় হামলার অভিযোগ, বোমাবাজিতে জখম ৪

দাদরি পুলিশ স্টেশনের স্টেশন হাউজ অফিসার নীরজ মালিক জানিয়েছে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে মেয়েটি জানিয়েছে তার দুই ভাই তার ওপর হামলা চালিয়েছে৷ এর আগেও নাকি বোনকে খুন করার চেষ্টা চালানো হয়েছিল৷ সেই চেষ্টা চালিয়েছিল তার ওই দুই দাদাই৷

মেয়েটি জানিয়েছে, তার দুই দাদা বৃহস্পতিবার একটি গাড়িতে করে তাকে নিয়ে বেড়াতে বেরোয়৷ মাঝরাস্তায় তাঁকে চলন্ত গাড়ি থেকে ধাক্কা মেরে ফেলে দেওয়া হয়, তার মুখে তখনই অ্যাসিড ছুঁড়ে মারা হয় বলে অভিযোগ৷ রাস্তার ধারে অচেতন হয়ে পড়ে থাকা অবস্থায় পুলিশ তাঁকে উদ্ধার করে৷

কিন্তু কেন বারবার নিজের বোনের ওপর হামলা চালাচ্ছে ভাইয়েরা, তা এখনও পরিষ্কার নয় পুলিশের কাছে৷ তবে পলাতক ওই দুই ভাইয়ের খোঁজ চালাচ্ছে পুলিশ৷ ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩২৬ ও ৩০৭ ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে৷ ওই তরুণীর অবস্থা আশংকা জনক বলে হাসপাতাল সূত্রে খবর৷